সুন্দরগঞ্জে স্ত্রীকে বেঁধে রেখে স্বামীকে গলা কেটে হত্যা

গলা কেটে হত্যা

গাইবান্ধা প্রতিনিধি(জাহদিুল ইসলাম জাহিদ)ঃ গাইবান্ধার সুন্দরগঞ্জে নিজ বাড়িতে ঢুকে স্ত্রীকে বেঁধে রেখে স্বামী উত্তম কুমার দেবনাথকে (৩২) গলা কেটে হত্যা করেছে দূর্বৃত্তরা।

মঙ্গলবার সন্ধ্যা ৭টায় পৌরসভার ৬ নম্বর ওয়ার্ডের তাঁতীপাড়া (হাবলুর মোড়) গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত উত্তম কুমার দেবনাথ পেশায় একজন রাজমিস্ত্রি এবং ওই এলাকার নিবারুণ চন্দ্র দেবনাথের ছেলে।

স্থানীয়রা জানান, সন্ধ্যায় একদল দূর্বৃত্ত বাড়িতে ঢুকে উত্তম কুমারকে গলা কেটে হত্যা করে পালিয়ে যায়। এসময় তাঁর স্ত্রী ললিতা রাণীর হাত ও মুখ বেঁধে রাখেন দূর্বৃত্তরা।

তাঁর স্ত্রীর চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটেঁ এসে উত্তমের গলাকাটা লাশ দেখতে পান। পরে হাত, পা ও মুখ বাঁধা অবস্থায় অসুস্থ ললিতা রাণীকে উদ্ধার করে উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেøক্সে ভর্তি করান প্রতিবেশিরা।

খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল উপস্থিত হন। তবে কি কারণে হত্যাকান্ড ঘটেছে রির্পোট লেখা পর্যন্ত তা জানা যায়নি।

গলা কেটে হত্যার বিষয়টি নিশ্চিত করে থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আব্দুল্লাহিল জামান বলেন, আমি ঘটনাস্থলে এসেছি। তবে হত্যার কারণ জানা যায়নি।

আরও পড়ুনঃ