রংপুরে শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে মামলা

রংপুরে শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে মামলা
রংপুরে শিশু ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগে মামলা
নিজস্ব প্রতিবেদক: রংপুর সদর উপজেলার পাগলাপীরে আট বছরের এক শিশুকে ধর্ষন চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে প্রতিবেশী প্রভাবশালী এক তামাক ব্যবসায়ির পুত্র যুবক বুলবুল ইসলাম সম্রাটের বিরুদ্ধে।

তারা সম্পর্কে চাচা ও ভাতিজি। এ ঘটনায় মামলা হলেও গ্রেফতার হয়নি অভিযুক্ত সম্রাট। অভিযুক্ত প্রভাবশালী হওয়ায় ঘটনাটি সমঝোতারও চেষ্টা করা হচ্ছে।

পুলিশ ও মামলা সুত্রে প্রকাশ, পাগলাপীরের মুলাপাড়ায় সোমবার বিকেলে নিজ বাড়ির সামনে খেলছিল হতদরিদ্র ভ্যান চালক মাসুদ মিয়ার আট বছরের ওই শিশু।

এসময় শিশুটির হাতে ১০ টাকা দিয়ে পাশের বাড়ির তামাক ব্যবসায়ি কেচু মিয়ার পুত্র বুলবুল ইসলাম ওরফে সম্রাট শিশুটিকে ৫ টাকা দিয়ে চকলেট ও ৫ টাকা দিয়ে সিগারেট কিনে নিয়ে একটি পরিত্যাক্ত ঘরে আসতে বলে।

শিশুটি তার কথামতো চকলেট ও সিগারেট কিনে সেখানে আসলে তার ওপর যৌন নির্যাতন চালায় সম্রাট।

মেয়েটির চিৎকারে আশেপাশের লোকজন ছুটে আসলে সম্রাট পালিয়ে যায়।

এ ঘটনাটি জানাজানি হলে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত জব্দ করে। পরে শিশুটির মা রুবি বেগম বাদি হয়ে একটি ধর্ষন চেষ্টা মামলা করেন।

কিন্তু এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করা হয় নি। শিশুটির দাদি মাসুমা জানান, আমার নাতির ক্ষতি করেছে সে।

যেহেতু এটা নিজেদের মধ্যে, তাই আমরা মিমাংসা করতে চাইছি।

গ্রামে বিচার দিয়েছি। দেখি গ্রামের বিচারে কি হয়। যদি উচিৎ বিচার না পাই তাহলে আমরা যেখানে যাওয়ার দরকার সেখানে যাবো।

এদিকে অভিযুক্ত সম্রাটের বাড়িতে গেলেও তাকে পাওয়া যায় নি। তবে বাড়ি থেকে বোন পরিচয়ে এক নারী কোন কথা বলতে চাননি।

জানা গেছে, অভিযুক্ত সম্রাটের পিতা প্রভাবশালী হওয়ায় যেকোনভাবে চাপ প্রয়োগ করে ঘটনাটিকে ধামাচাপা দেয়ার জন্য চেষ্টা করছে।

এ ব্যপারে সদর কোতয়ালী থানার ওসি সাজেদুল ইসলাম জানান, এঘটনায় মামলা হয়েছে। অভিযান চলছে সম্রাটকে গ্রেফতারের জন্য।

এ ব্যপারে রংপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার(সদর) মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, শিশু ধর্ষন চেষ্টার ব্যপারে একটি মামলা হয়েছে।

আমরা মামলাটি নিয়ে আসামীকে গ্রেফতার করতে অভিযান চালাচ্ছি। এছাড়াও শিশুটিকে ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারের মাধ্যমে কাউন্সিলিং করা হচ্ছে।

যদি কেউ শিশুটির পরিবারের ওপর ধরনের চাপ কিংবা ভয়ভীতি দেখায় সেটিও আমরা নজর রাখছি। তাদের ছাড় দেয়া হবে না।
আরও পড়ুনঃ আইন ও অপরাধ বিভাগে।