রংপুরে টিসিবির পেঁয়াজের সাথে ৩ পণ্য সংযুক্ত

রংপুরে টিসিবির পেঁয়াজের সাথে ৩ পণ্য সংযুক্ত
রংপুরে টিসিবির পেঁয়াজের সাথে ৩ পণ্য সংযুক্ত

হুমায়ুন কবীর মানিক: দেশের বিভিন্ন স্থানের মতো রংপুরেও অবশেষে বহু প্রতিক্ষিত ৪৫ টাকায় কেজি দরে পেঁয়াজ বিক্রি ইতিমধ্যে শুরু করেছে ট্রেডিং করপোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি)। তবে পেঁয়াজ বিক্রির গ্রাহকদের লাইন বৃদ্ধি পাওয়ায় নগরীতে আগে থেকে শুরু করা ৫টি ট্রাকের স্থানে ১০টি ট্রাক বৃদ্ধি করে গ্রাহকদের সামলানো হচ্ছে।

পেঁয়াজ বিক্রির কারণে নগরীতে টিসিবির ট্রাককে ঘিরে ক্রেতাদের প্রতিদিনই থাকছে উপচে পড়া ভীড়।বুধবার থেকে টিসিবির ট্রাকে নতুন সংযুক্ত হচ্ছে আরও ৩টি পণ্য। গ্রাহকরা অনায়াসে আজ থেকে ডাল, তেল ও চিনি টিসিবির ট্রাক থেকে ক্রয় করতে পারবেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রংপুরের টিসিবি কর্মকর্তা সুজাদ্দৌলা।

টিসিবি সুত্রে জানা গেছে, রংপুর টিসিবি অফিস পেঁয়াজ বিক্রি মনিটরিং করছে। এছাড়াও ক্রেতাদের সুবিধার্থে জনসমাগত স্থলে খোলা ট্রাক রেখে পেঁয়াজ বিক্রিও তদারকি করছে। নগরীর গুরুত্বপূর্ণ শাপলা চত্বর, প্রেসক্লাব চত্বর, সিটি বাজার, ডিসির মোড় ও সিও বাজারে ট্রাক সেলের মাধ্যমে পেঁয়াজ বিক্রি শুরু করা হলেও বর্তমানে ১০টি ট্রাক দিয়ে নগরীর বিভিন্ন পয়েন্টে পেঁয়াজ বিক্রি করা হচ্ছে। এতে গ্রাহকরা খুশি হওয়ায় আরো ট্রাকের সংখ্যা বৃদ্ধির দাবি জানিয়েছে।

নগরীর প্রেসক্লাব চত্বরে পেঁয়াজ কিনতে আসা রিকশাচালক লাল্টু মিয়া বলেন, খুচরা ও পাইকারী বাজারে পেঁয়াজের দাম অস্বাভাবিক বেশি। এ কারণে টিসিবির ৪৫ টাকা মূল্যের পেঁয়াজ কিনতে এসেছি। তবে এই দীর্ঘ লাইনে দাঁড়িয়ে পেঁয়াজ কেনা কষ্টকর। তার মধ্যে টিসিবি শুধু মাত্র পাঁচটি নির্ধারিত স্থানে পেঁয়াজ বিক্রি করছে। নিয়ম করে সবখানে বিক্রির ব্যবস্থা করা হলে অনেকেই উপকৃত হবেন।

নগরীর সব পাড়া মহল্লায় ট্রাকে করে পেঁয়াজ বিক্রি করায় অনেকেই স্বাচ্ছন্দে পেঁয়াজ কিনছেন।
পেঁয়াজ কিনতে আসা গৃহিনী আশা মনি জানান, অনেকক্ষণ অপেক্ষা শেষে পেঁয়াজ কিনতে পেরেছি। আসলে ট্রাকে যে পরিমাণ পেঁয়াজ থাকে তাতে গ্রাহকদের চাহিদা পুরণ হয় না। আরও সংখ্যা বৃদ্ধি করা প্রয়োজন।

শালবন ইন্দ্রারার মোড় এলাকায় টিসিবির ডিলার আলমগীর হোসেন বলেন, আমরা পেঁয়াজ বিক্রি করতে হিমশিম খাচ্ছি। দুপুর ১টার মধ্যে পেঁয়াজ শেষ হয়ে যায়। এরপরেও দেখা যায় লম্বা লাইন। পেঁয়াজের বা ট্রাকের পরিমাণ বাড়ালে গ্রাহকরা উপকৃত হবে।
টিসিবির মুখপাত্র হুমায়ুন কবীর বলেন, আমরা গ্রাহকদের চাহিদা বুঝে ট্রাকের সংখ্যা বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনা করছি।

রংপুরের টিসিবির কর্মকর্তা সুজাউদ্দৌলা জানান, সরকার পেঁয়াজের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে এবং ন্যায্য মূল্য নিশ্চিত করতে টিসিবির মাধ্যমে বিক্রয়ের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। পর্যাপ্ত পেঁয়াজ রয়েছে। পেঁয়াজ নিয়ে কোন অনিয়ম বরদাস্ত করা হবে না। আমরা ট্রাকের সংখ্যা বৃদ্ধির বিষয়টি বিবেচনায় রেখেছি। আজ থেকে টিসিবির ট্রাকে তেল ৮০ টাকা লিটার, ডাল ৫০ ও চিনি ৫০ টাকা কেজিতে বিক্রি করা হবে। বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে গ্রাহকদের চাহিদা মাথায় রাখছে টিসিবি।

আপনার মতামত লিখুনঃ