যুক্তরাষ্ট্র ভয়ঙ্কর জবাব পাবে: ইরান

যুক্তরাষ্ট্র ভয়ঙ্কর জবাব পাবে: ইরান

ইরানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মাদ জাওয়াদ জারিফ বলেছেন, উগ্র জঙ্গি গোষ্ঠীগুলোর বিরুদ্ধে যুদ্ধের ঝাণ্ডাবাহী কমান্ডার জেনারেল কাসেম সোলায়মানিকে সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে হত্যা করেছে আমেরিকা।

এর মাধ্যমে ওয়াশিংটন একটি ভয়ঙ্কর, কাণ্ডজ্ঞানহীন ও উত্তেজনা সৃষ্টিকারী পদক্ষেপ নিয়েছে।

তিনি আরো বলেছেন, আমেরিকার এই ঔদ্ধত্বপূর্ণ ও হঠকারী হামলার যেকোনো পরিণতির দায় ওয়াশিংটনকে বহন করতে হবে। জারিফ বলেন, ইরানের সর্বোচ্চ জাতীয় নিরাপত্তা পরিষদ এখন যে সিদ্ধান্ত নেবে আন্তর্জাতিক অঙ্গনে তা বাস্তবায়নের দায়িত্ব পালন করবে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

কুদস বাহিনীর প্রধান জেনারেল কাসেম সুলেইমানি যুক্তরাষ্ট্রের হামলায় নিহতের পর ইরান হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছে, ওয়াশিংটন এর ভয়ঙ্কর জবাব পাবে।

শুক্রবার ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির উপদেষ্টা হেসামুদ্দিন আসিনা এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন।

হেসামুদ্দিন বলেছেন, ওয়াশিংটন কাশেম সুলাইমানিকে হত‌্যা করে চূড়ান্ত সীমা অতিক্রম করেছে। তাদেরকে এর ভয়াবহ পরিণতি ভোগ করতে হবে।

তিনি বলেন, ‘ট্রাম্প তার জুয়ার মাধ্যমে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রকে বিপজ্জনক আঞ্চলিক পরিস্থিতিতে ঠেলে দিয়েছে। যে বা যারা চূড়ান্ত সীমা অতিক্রম করে, তাদের এর ফল ভোগ করার জন‌্য প্রস্তুত থাকতে হয়।’

শুক্রবার ভোরে বাগদাদ বিমানবন্দরে তিনটি রকেট হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্র। এতে ইরানের বিপ্লবী বাহিনীর এলিট ফোর্স আল কুদসের প্রধান জেনারেল কাসেম সোলাইমানি এবং ইরাকের শীর্ষ শিয়া মিলিশিয়া কমান্ডার আবু মাহদিসহ বেশ কয়েকজন নিহত হয়।

জেনারেল সোলাইমানি ইরানের অত‌্যন্ত প্রভাবশালী সেনা কর্মকর্তা হিসেবে পরিচিত। তার নেতৃত্বাধীন কুদস বাহিনী সরাসরি দেশটির সর্বোচ্চ নেতা আয়াতুল্লাহ খামেনির নির্দেশনায় পরিচালিত হয়।