ম্যানইউ কোচ আক্রমণভাগের জ্বলে ওঠার অপেক্ষায়

ম্যানইউ কোচ আক্রমণভাগের জ্বলে ওঠার অপেক্ষায়
ম্যানইউ কোচ আক্রমণভাগের জ্বলে ওঠার অপেক্ষায়

চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার-ফাইনালের ফিরতি পর্বে বার্সেলোনার মুখোমুখি হওয়ার আগে নিজের আক্রমণভাগের উপর আস্থা রাখছেন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের কোচ উলে গুনার সুলশার। শেষ ষোলোয় পিএসজির বিপক্ষে প্রত্যাবর্তনের স্মৃতি শিষ্যদের ঘুরে দাঁড়াতে আত্মবিশ্বাস জোগাবে বলে মনে করেন তিনি।
মঙ্গলবার বাংলাদেশ সময় রাত একটায় কাম্প নউয়ে শুরু হবে দুই দলের ফিরতি পর্বের লড়াই। ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে গত বুধবার প্রথম লেগে ১-০ গোলে হেরেছিল ইংলিশ ক্লাবটি।

সেমি-ফাইনালে পৌঁছাতে হলে প্রতিপক্ষের মাঠে কমপক্ষে দুটি গোল করতেই হবে ইউনাইটেডকে। আগের রাউন্ডে পিএসজির বিপক্ষে প্রথম লেগে ২-০ গোলে হারের পর ফরাসি দলটির মাঠে ৩-১ ব্যবধানে জিতেছিল ইউনাইটেড। সুযোগ কাজে লাগাতে পারলে অঁতনি মার্সিয়াল, আলেক্সিস সানচেস, মার্কাস র‌্যাশফোর্ড, রোমেলু লুকাকুদের নিয়ে গড়া আক্রমণভাগ আবারও তেমন কিছু করতে পারবে বলে মনে করেন সুলশার।
“সেটাই কোটি টাকার প্রশ্ন – গোলগুলি কে করতে পারবে? এজন্যই সেরা স্ট্রাইকাররা সবচেয়ে দামি।”
“(প্রথম লেগে) আমরা কয়েকটা ভালো সুযোগ পেয়েছিলাম, কিন্তু আপনি যখন গোলরক্ষককে পরাস্ত করতে পারবেন না তখন আপনি গোল করতে পারবেন না। আমরা জানি যে আমরা সুযোগ সৃষ্টি করব আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে সুযোগগুলো কাজে লাগাতে হবে।”

কাম্প নউয়ে চ্যাম্পিয়ন্স লিগে গত ৩০ ম্যাচে অপরাজিত বার্সেলোনা। তবে কঠিন পরিস্থিতিতে পিএসজির মাঠে জয়ের স্মৃতি থেকে আত্মবিশ্বাস নিচ্ছেন সুলশার।
“পিএসজির বিপক্ষে জয়ের স্মৃতি খেলোয়াড়দের সাহায্য করবে। আমরা জানি যে আমরা ঘুরে দাঁড়াতে পারি। কাম্প নউয়ে বার্সেলোনা কঠিন প্রতিপক্ষ। কিন্তু সেই রাতের স্মৃতি খেলোয়াড়দের মনে থাকবে। এটা অনেক আগের কথা নয় এবং ওই সময়ের তুলনায় আমরা এক গোলে এগিয়ে আছি।”
“যদি আমরা প্রথম গোলটা পেয়ে যাই তাহলে তা খুব গুরুত্বপূর্ণ হবে। হঠাৎ করে আমরা সমতায় চলে আসবো।”