ব্যক্তিত্বহীন গম্ভীর, আফ্রিদি মানসিক রোগী!

ব্যক্তিত্বহীন গম্ভীর, আফ্রিদি মানসিক রোগী!ব্যক্তিত্বহীন গম্ভীর, আফ্রিদি মানসিক রোগী!
ব্যক্তিত্বহীন গম্ভীর, আফ্রিদি মানসিক রোগী!

ভারত-পাকিস্তান মানেই এক যুদ্ধ যুদ্ধ ভাব। সীমান্ত হোক আর অন্য কোনো ক্ষেত্রে, লড়াই চলতেই থাকে। কখনও কখনও এটি তারকাদের মধ্যে কথার লড়াই পর্যন্ত পৌঁছে যায়। যেমনটি চলছে ভারত-পাকিস্তানের দুই সাবেক ক্রিকেটার গৌতম গম্ভীর ও শহীদ আফ্রিদির মধ্যে।

দুজনের মধ্যে কথার লড়াই বর্তমানে চরমে। তবে কথার এই লড়াইটা শুরু করেন মূলত আফ্রিদিই। সম্প্রতি প্রকাশিত হওয়া পাকিস্তানি অলরাউন্ডারের আত্মজীবনী ‘গেম চেঞ্জার’ বইয়ে ভারতীয় ওপেনার গৌতম গম্ভীরকে নিয়ে বেশ আপত্তিজনক কথা লিখেছেন। যা প্রকাশিত হওয়ার পরই গম্ভীর টুইট করে আফ্রিদিকে একপ্রকার মানসিক রোগিই আখ্যা দেন।

আত্মজীবনীতে গম্ভীরকে ব্যক্তিগত শত্রু হিসেবে তুলে ধরে ব্যক্তিত্বহীন আখ্যায়িত করেন আফ্রিদি। লেখেন, ‘কিছু শত্রু থাকে ব্যক্তিগত, আর কিছু পেশাগত। প্রথমটি গম্ভীরকেই বলা যায়। সে এবং তার আচরণে বেশ সমস্যা আছে। তার কোনো ব্যক্তিত্ব নেই। ক্রিকেটের মতো দুর্দান্ত বিষয়ে তিনি এক অদ্ভুত চরিত্র। যার কোনো বিরাট রেকর্ড নেই কিন্তু প্রচ- ঔদ্ধত্য আছে।’

‘ডন ব্রাডম্যান ও জেমস বন্ডের মিশ্রিত আচরণ তার (গম্ভীরের। করাচীতে আমরা তার মতো লোককে কৃপণ বলি। এটা সত্যি আমি হাসিখুশি ও ইতিবাচক লোক পছন্দ করি। সে আক্রমণাত্মক বা প্রতিদ্বন্দ্বী কিনা সেটা ব্যাপার নয়। কিন্তু তাকে অবশ্যই ইতিবাচক হতে হবে যা, অবশ্যই গম্ভীর নন।’

৩৭ বছর বয়সী ভারতীয় সাবেক ওপেনার নিজের সম্পর্কে এসব কিছুতেই সহ্য করতে পারেননি। তিনিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম টুইটারে আফ্রিকে মানসিক রোগী আখ্যা দিয়ে একটি পোষ্ট দেন। সেখানে লেখেন, ‘শহীদ আফ্রিদি আপনি একজন হাস্যকর মানুষ। যাই হোক আমরা এখনও পাকিস্তানিদের জন্য চিকিৎসা ভিসা প্রদান করি। আমি ব্যক্তিগতভাবে আপনাকে একজন মানসিক রোগ বিশেষজ্ঞের কাছে নিয়ে যাবো।’