বোদায় এএন্ডএ অটো ব্রিকস এর বাণিজ্যিক উৎপাদন উদ্বোধন

বোদায় এএন্ডএ অটো ব্রিকস এর বাণিজ্যিক উৎপাদন উদ্বোধনবোদায় এএন্ডএ অটো ব্রিকস এর বাণিজ্যিক উৎপাদন উদ্বোধন
বোদায় এএন্ডএ অটো ব্রিকস এর বাণিজ্যিক উৎপাদন উদ্বোধন

মোঃ লিহাজ উদ্দীন মানিক, বোদা (পঞ্চগড়) প্রতিনিধি :

পঞ্চগড়ের বোদা উপজেলার চন্দনবাড়ী ইউনিয়নের কামাতপাড়া এলাকায় কৃষি জমি নষ্ট ও পরিবেশের ক্ষতি করে না এমন পরিবেশ বান্ধব ইটভাটা এএন্ডএ অটো ব্রিকস ইন্ডাষ্ট্রিজ এর বাণিজ্যিক উৎপাদন কার্যক্রমের উদ্বোধন করা হয়েছে। গত রবিবার দুপুরে রেলপথ মন্ত্রী এ্যাডঃ নুরুল ইসলাম সুজন প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে আনুষ্ঠানিক ভাবে পরিবেশ বান্ধব এই ইটভাটার বাণিজ্যিক উৎপাদন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন। উপজেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মনিরুল কাদেরের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন পঞ্চগড় জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোঃ আনোয়ার সাদাত স¤্রাট।

স্বাগত বক্তব্য রাখেন এএন্ডএ অটো ব্রিকস ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এইচ এম জাহাঙ্গীর আলম রানা। অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাকোয়া ইউ’পি চেয়ারম্যান সায়েদ জাহাঙ্গীর হাসান সবুজ, চন্দনবাড়ি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মোঃ নজরুল ইসলাম প্রধান. জেলা পরিষদ সদস্য মোঃ জাকির হোসেন প্রমুখ। আলোচনা শেষে মন্ত্রী এএন্ডএ অটো ব্রিকস ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডে উৎপাদিত সলিড ও হলো ব্রিকস উৎপাদন কার্যক্রম পরিদর্শন করেন। এএন্ডএ অটো ব্রিকস ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের জেনারেল ম্যানেজার মোঃ আনোয়ার হোসেন জানান, বোদা উপজেলার কামাতপাড়া এলাকায় জার্মান প্রযুক্তি ও চীনা কারিগরী সহায়তায় এএন্ডএ অটোমেটিক ব্রিকস ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেড নামে একটি প্রতিষ্ঠান বৃহত্তর দিনাজপুর জেলায় প্রথম উন্নত মানের পরিবেশ বান্ধব ইট উৎপাদন শুরু করেছে।

এই মেশিনে দৈনিক ১লাখ ইট উৎপাদনে সক্ষম। তবে আপাতত চাহিদার ভিত্তিতে দৈনিক ২০/৩০ হাজার ইট উৎপাদন করছে। এ ব্যাপারে এএন্ডএ অটো ব্রিকস ইন্ডাষ্ট্রিজ লিমিটেডের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এইচ এম জাহাঙ্গীর আলম রানা জানান, ভূমি, পরিবেশ ও বায়ুমন্ডলের মারাত্মক ক্ষতির হাত থেকে রক্ষা পাবে পঞ্চগড় জেলার মানুষ। কৃষি জমি নষ্ট ও পরিবেশের ক্ষতি করে না এমন পরিবেশ বান্ধব ইট উৎপাদন বাণিজ্যিক ভিত্তিতে শুরু হয়েছে। ইট তৈরি করা, শুকানো ও পোড়ানোতে এখন অত্যাধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহৃত হওয়ায় উন্নত মানের নিখুঁত, দৃষ্টি নন্দন, সাইজ অনুযায়ী প্রতিটি ইট একই মানের তৈরি করা সম্ভব।

তবে ঘর-বাড়িসহ সকল প্রকার অবকাঠামোতে অটো ইট ব্যবহার করলে কৃষি জমি রক্ষার পাশাপাশি পরিবেশ রক্ষা করা সম্ভব হবে। তিনি আরো জানান, বিএসটিআই কর্তৃক স্ট্যান্ডার্ড নির্ধারিত এবং বুয়েট কর্তৃক পরীক্ষিত, উন্নত মানের নিখুঁত, দৃষ্টি নন্দন, সাইজ অনুযায়ী প্রতিটি ইট একই মানের হওয়ায় নির্মাণে সাধারণ ইটের চেয়ে শতকরা ১৭ ভাগ ব্যয় সাশ্রয়ী, সাধারণ ইটের চেয়ে দিগুণেরও বেশি স্থায়ীত্বসহ নানা বৈশিষ্ট্য বিদ্যমান।

কাঁদাযুক্ত লবণাক্ত ও কৃষি কাজে ব্যবহার অনুপযোগী মাটি প্রক্রিয়াজাত করে উন্নত প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে এখানে ইট তৈরি করা হয়ে থাকে। প্রতি হাজার ফাস্ট ক্লাশ ইট সাড়ে ৮ হাজার এবং সেকেন্ড ক্লাশ ইট সাড়ে ৭ হাজার টাকা দরে বিক্রি করা হচ্ছে।