ফিডব্যাকের মহামিলন উৎসব

ফিডব্যাকের মহামিলন উৎসব
ফিডব্যাকের মহামিলন উৎসব

চল্লিশ বছরেরও বেশি সময় আগে ‘ফিডব্যাক’র ম্যানেজার খোকার হাত ধরেই ব্যান্ডদল ‘ফিডব্যাক’র যাত্রা শুরু হয়েছিল। খোকার উদ্যোগে ফোয়াদ নাসের বাবু, মাকসুদ, সেলিম হায়দার, জাকির, পিয়ারু, রোমেলের হাত ধরে ফিডব্যাকের যাত্রা শুরু হয় ১৯৭৭ সালে। ২০১৯ সালে এসে ৪২ বছরে পা রাখল ফিডব্যাক। ১৯৮৭ সালে এই দলে যোগ দেন লাবু রহমান। ১৯৯৬ সালে মাকসুদ এই ব্যান্ড দল ছেড়ে চলে যান। মূলত লাবু রহমানের হাত ধরেই ফিডব্যাক দর্শকের সামনে বাংলা গান গাইতে শুরু করে। এর আগে ‘ফিডব্যাক’ শুধু ইংরেজি গানই পরিবেশন করত। আগামী ৩০ এপ্রিল রাজধানীর বসুন্ধরা কনভেনশন হলে ‘ফোর ডিকেডস অব ফিডব্যাক’ সেলিব্রেশন অনুষ্ঠিত হবে বলে জানান ফিডব্যাকের লিড গিটারিস্ট ও ভোকালিস্ট লাবু রহমান।

লাবু বলেন, শ্রদ্ধেয় খোকা ভাইয়ের হাত ধরে আজ থেকে চার দশকেরও বেশি সময় আগে ফিডব্যাকের যাত্রা শুরু হয়েছিল। দীর্ঘ পথচলায় যারা যেভাবে আমাদের সঙ্গে ছিলেন প্রত্যেকের প্রতি শ্রদ্ধা, ভালোবাসা। আর শ্রোতা, ভক্ত, দর্শকের জন্য রইল অপরিসীম ভালোবাসা। কারণ তাদের কারণেই আজ ফিডব্যাক সাফল্যের এই পর্যায়ে এসেছে। ধন্যবাদ মাকসুদকে আমাদের সঙ্গে এই সেলিব্রেশনে যোগ দেয়ার জন্য। আশা করছি জমজমাট এক সেলিব্রেশন হবে। সবাইকে পাশে থাকার জন্য ধন্যবাদ। লাবু রহমান জানান, মাকসুদ চলে যাওয়ার পর দলের প্রধান ভোকালিস্ট হিসেবে যোগ দেন লুমিন। ‘ফিডব্যাক’র বর্তমান লাইনআপ হচ্ছে দলনেতা ও কিবোর্ডে ফোয়াদ নাসের বাবু, প্রধান ভোকাল লুমিন, লিড গিটার ও ভোকাল লাবু রহমান, ভোকালিস্ট রায়হান, বেইজ গিটারে দানেশ। ফিডব্যাকের উল্লেখযোগ্য অ্যালবামগুলো হচ্ছে ‘ফিডব্যাক’, উল্লাস, মেলা, বঙ্গাব্দ ১৪০০, বাউলিয়ানা, জোয়ার ইত্যাদি।