প্রাথমিকের গন্ডি পেরুতে পারেনি অথচ তিনি এমবিবিএস ডাক্তার

প্রাথমিকের গন্ডি পেরুতে পারেনি অথচ তিনি এমবিবিএস ডাক্তার
প্রাথমিকের গন্ডি পেরুতে পারেনি অথচ তিনি এমবিবিএস ডাক্তার

স্টাফ রিপোর্টার॥ প্রাথমিকের গন্ডি পেরুতে পারেনি। তিনি এমবিবিএস ডাক্তার এবং হাসপাতালের মালিক। দীর্ঘদিন থেকে সাধারণ মানুষকে ধোকা দিয়ে প্রতারণা করে আসছিল রফিকুল ইসলাম নামে এক ব্যক্তি। অবশেষে র‌্যাবের জালে ধরা পড়ে ওই প্রতারক ডাক্তার। পরে তাকে এক লাখ টাকা জরিমানা করে ছেড়ে দেয়া হয়। সেই সাথে ওই চিকিৎসকের মালিকানাধিন সেবা হাসপাতাল সিলগালা করে দেয়া হয়। বৃহস্পতিবার বিকেলে নগরীর ধাপ এলাকায় র‌্যাব-১৩ এ অভিযান চালিয়ে হাসপাতাল সিলগালা এবং ভ্রাম্যমান আদালতে জরিমানা করা হয়।
সূত্র জানায়, সেবা হাসপাতালের মালিক রফিকুল ইসলাম প্রাথমিকে গন্ডি পর করতে পারেনি। সে চিকিৎসক না হয়েও নিজেকে চিকিৎসক পরিচয় দিয়ে রোগীদের সঙ্গে প্রতারণা করে আসছিলেন। একটি হাসপাতাল করেছেন নগরীর প্রাণ কেন্দ্র ধাপ এলাকায়।
র‌্যাব ১৩ এর অধিনায়ক রেজা আহমেদ ফেরদৌস জানান সেবা হাসপাতালটিতে রোগীদের হয়রানি, বেশি করে বিল আদায় করাসহ নানাভাবে হয়রানি করা হচ্ছিল। এসব অভিযোগের ভিত্তিতে সেখানে অভিযান চালায় র‌্যাব-১৩। অভিযানে আটক ভুয়া চিকিৎসক রফিকুল ইসলামকে ১ লাখ টাকা জরিমানা করাসহ অনাদায়ে তিন মাসের জেল দিয়েছেন নির্বাহী ম্যাজিস্টেট আফরিনা জাহান। সেবা হাসপাতালটির মালিক রফিকুল ইসলাম দীর্ঘদিন ধরে নিজেকে চিকিৎসক দাবি রোগীদের সাথে প্রতারণা করে আসছিলেন।
এদিকে জেলা সিভিল সার্জন ডা. হিরন্ব কুমার রায় বলেন, ভুুয়া ডাক্তারের কোন শিক্ষাগত যোগত্যাই নেই। তিনি নিজেকে ডাক্তার পরিচয় দিয়ে মানুষের সাথে প্রতারণা করতো।

আপনার মতামত লিখুনঃ