পেইসমেকার চলবে ব্যাটারি ছাড়াই

পেইসমেকার চলবে ব্যাটারি ছাড়াই
পেইসমেকার চলবে ব্যাটারি ছাড়াই

ব্যাটারি ছাড়াই চলবে এমন পেইসমেকার বানিয়েছেন একদল গবেষক। হৃদস্পন্দন থেকেই শক্তি নেবে এটি।
নতুন এই ব্যাটারিহীন পেইসমেকার বানিয়েছেন জর্জিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি’র গবেষক দল। ইতোমধ্যেই শুকরের শরীরে এটি ব্যবহার করে সাফল্য পেয়েছেন তারা– খবর ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড মিররের।
ডিভাইসটিতে একটি ‘এনার্জি হার্ভেস্টার’ রয়েছে যা হৃদপি-ের চারপাশে জড়িয়ে থাকে এবং অঙ্গের নড়াচড়ায় বিদ্যুত উৎপাদন করে। ফলে প্রতিটি হৃদস্পন্দনে যে শক্তি পাওয়া যায় তা দিয়েই চলবে পেইসমেকারটি।
নেচার কমিউনিকেশনস-এ এই গবেষণা প্রকাশ করেছে দলটি। শুকরের শরীরে এটি ব্যবহার করা হয়েছে কারণ শুকরের হৃদপি- এবং মানুষের হৃদপি-ের আকার প্রায় সমান।

এই দলটির মধ্যে ছিলেন মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং চীনের বিজ্ঞানীরা। দলের নেতৃত্ব ছিলেন জর্জিয়া ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি’র ড. ঝং লিন ওয়াং।
“শক্তিশালী ডায়াগনোসিস এবং চিকিৎসার জন্য লাখো রোগী ‘ইমপ্ল্যান্টএবল মেডিক্যাল ইলেকট্রনিক ডিভাইসের’ (আইমেডস) ওপর নির্ভর করেন।”

“দশকের পর দশক ধরে আইমেডস-এর সার্কিটের শক্তি খরচ কমিয়ে আনা হয়েছে এবং আকারে ছোট করে নমনীয় করা হয়েছে।”
“কিন্তু আইমেডস-এর ব্যাটারির আকার সাধারণত বড় এবং স্বল্পস্থায়ী হয়।”
পরীক্ষায় দেখা গেছে হৃদস্পন্দন থেকে যে শক্তি পাওয়া যাচ্ছে তা পেইসমেকারের প্রয়োজনীয় শক্তির চেয়ে বেশি।