পুলিশ টহল দলের ওপর চরমপন্থী সর্বহারা দলের গুলি বর্ষন : এএসআই গুলিবৃদ্ধ

পুলিশ টহল দলের ওপর চরমপন্থী সর্বহারা দলের গুলি বর্ষন : এএসআই গুলিবৃদ্ধ
পুলিশ টহল দলের ওপর চরমপন্থী সর্বহারা দলের গুলি বর্ষন : এএসআই গুলিবৃদ্ধ

আরএইচ রফিক,বগুড়া ।।
বগুড়ার শেরপুরে টহলরত পুলিশের ওপর গুলি চালিয়েছে নিষিদ্ধ চরমপন্থী সর্বহারা দলের সশস্ত্র ক্যাডাররা । এতে নান্নু মিয়া (৩৭) নামের পুলিশের এএসআই গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। আশংকজনক অবস্থায় তাকে ঢাকায় প্রেরন করা হয়েছে। তার অবস্থা আশংকাজানক ।
ঘটনাটি ঘটেছে সোমবার দিবাগত গভীর রাতে বগুড়ার শেরপুর উপজেলার ভবানীপুর ইউনিয়ন বাজার এলাকায় ।
রাত সাড়ে ১২ টার দিকে তাঁকে উদ্ধার করে বগুড়ার শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর রাত তিনটার দিকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে ঢাকায় স্থানান্তরের সিদ্ধান্ত নেন চিকিৎসকেরা।

পুলিশের একটি দায়িত্বশীল বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, সোমবার রাতে উপজেলার ভবানীপুর বাজার এলাকায় শেরপুর থানা পুলিশের একটি দল রাত্রিকালীন টহলে ছিল। এএসআই নান্নু মিয়ার নের্তৃতে অপর দুই পুলিশ কনস্টেবল ভাড়ায় চালিত সিএনজি অটোরিকশায় করে ওই এলাকায় টহলে যায়।
পুলিশ সদস্যদের বহনকারী সিএনজি অটোটি উপজেলার ভবানীপুর মন্দিরের মূল সড়ক দিয়ে বাজারের দিকে যাবার সময় একদল সশস্ত্র সর্বহারা দলের মুখোমুখী হয়ে যায় । চরমপন্থী দলের সশস্ত্র সদস্যরা ওই সময় ভরানীপুর বাজারে বিভিন্ন এলাকায় পোস্টারিং করে ফিরছিল। এ সময় নান্নু মিয়া তাদের চ্যালেঞ্জ করলে চরমপন্থী সর্বহারা দলের সদস্যরা তাকে লক্ষ করে গুলি ছোঁড়ে । এতে করে ডান পায়ের হাঁটুতে গুলি বৃদ্ধ হন তিনি। আকস্মিক গুলি বর্ষনের ঘটনায় পুলিশ সদস্যরা হতচকিত হয়ে পড়েন।

এসময় চরমপন্থীদের লক্ষ্য করে পুলিশ সদস্যরা পাল্টা গুলি বর্ষন শুরু করে । পুলিশের পাল্টা গুলি বর্ষনের ঘটনায় ২০/২৫ জনের সশস্ত্র চরমপন্থী দ্রুত পায়ে হেটে পার্শ্ববর্তি সিরাজগঞ্জ জেলার সীমানায় ঢুকে পড়ে। তবে পুলিশের গুলিতে চরমপন্থী দলের কেউ আহত হয়েছে কি না সে বিষয়টি স্পষ্ট নয় ।
এদিকে স্থানীয় একাািধক সূত্রে জানা গেছে , চরমপন্থী সর্বহারা দলের পক্ষে সাঁটানো ওসব পোস্টারের লেখা ছিল, ‘পাবনায় কয়েকটি বিপ্লবী সংগঠনের নামে রাষ্ট্রীয় চক্রান্তে ৬১৪জন সদস্যের নাটকীয় আত্মসমর্পণকে প্রত্যাখ্যান করুন— মার্কসবাদ, লেনিনবাদ জিন্দাবাদ।’

এ বিষয়টি নিশ্চিত করে শেরপুর থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) বুলবুল মিয়া আমাদের সময় ডট কম’কে জানান, চরমপন্থীদের দলের ৬১৪ জন সদস্য ৯ মার্চ মঙ্গলবার পাবনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর উপস্থিতি আত্মসমর্পণের কথা রয়েছে। সেখানে, পুলিশের মহাপরিদর্শকসহ পুলিশের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা উপস্থিত থাকার কথা রয়েছে।এই পুলিশ কর্মকর্তা আরো জানান , নান্নু মিয়া ডান হাঁটুতে গুলিবিদ্ধ হয়েছেন।

এদিকে শেষ খবর পর্যন্ত গুলিতে আহত এএসআই নান্ন ু মিয়াকে প্রথমে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হলে তার অবস্থার অবনতি আশংকায় রাতেই তাকে ঢাকায় প্রেরন করা হয় ।
উল্লেখ্য , অতি সম্্রপতি কালে জেলার ধুনট ,শেরপুর , নন্দিগ্রাম সহ আশ পাশের সিরাজগঞ্জ জেলার বিভিন্ন স্থানে চরপন্থী সর্বহারা দলের তৎপরতা ,চাঁদাবাজী ,আশংজনক ভাবে বৃদ্ধি পাওয়া এবং বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান ও দফায় দফায় সাংগঠনিক কার্যক্রম পরিচালিত হবার বিষয়টি আমাদের সময় ডট কম সহ বিভিন্ন মিডিয়ায় প্রকাশিত হবার পরও এ বিষয়ে আইন শৃংখলা বাহিনীর ভূমিকা না থাকায় পুলিশের টহল দলের উপর গুলিবর্ষন এবং নির্বিঘেœ ঘটনাস্থল ত্যাগের বিষয়টি স্থানিয়দের মধ্য তীব্র আতং ছড়িয়ে দিয়েছে।

আপনার মতামত লিখুনঃ