নুসরাতের অধ্যক্ষের বিচার শুরু

নুসরাতের অধ্যক্ষের বিচার শুরু

যৌন নিপীড়নের মামলায় ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফির অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠনের মধ্য দিয়ে বিচার শুরু হয়েছে।

ফেনীর নারী ও শিশুনির্যাতন দমন ট্রাইব্যুনালের বিচারক জেলা ও দায়রা জজ মামুনুর রশিদ সোমবার এই আদেশ দেন।

ওই আদালতের পিপি হাফেজ আহমেদ জানান, অভিযোগ গঠন শেষে আদালত সাক্ষ্য গ্রহণের জন্য আগামী ২৭ অক্টোবর দিন ঠিক করেছে।

গত ২৭ মার্চ ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলা আলিম পরীক্ষার্থী নুসরাতকে যৌন নিপীড়ন করেন বলে তার মা থানায় মামলা করেন।

ওই দিনই অধ্যক্ষ সিরাজকে গ্রেপ্তার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়।
এরপর ৬ এপ্রিল নুসরাত পরীক্ষা দিতে মাদ্রাসায় গেলে কয়েকজন তাকে কৌশলে ডেকে মাদ্রাসার সাইক্লোন সেন্টারের ছাদে নিয়ে গায়ে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এর চার দিন পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

যৌন নিপীড়ন মামলা তুলে না নেওয়ায় তাকে হত্যা করা হয় বলে পরিবারের অভিযোগ।
গত ৩ জুলাই এ মামলায় অভিযোগপত্র দেন মামলার তদন্ত কর্মকর্তা পিবিআই ফেনীর পরিদর্শক মো. শাহ আলম। অভিযোগপত্রে ফেনীর সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসার বরখাস্ত হওয়া অধ্যক্ষ সিরাজ-উদ-দৌলাকে একমাত্র আসামি করা হয়।

আর পুড়িয়ে হত্যা মামলায় এজহারভুক্ত আটজনসহ ২১ জনকে গ্রেপ্তার করে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের মধ্যে সিরাজ-উদ-দৌলাসহ ১২ জন হত্যার দায় স্বীকার করে আদালতে স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দেন। পরে অধ্যক্ষ সিরাজকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। হত্যা মামলায় অধ্যক্ষসহ ১৬ জনের বিরুদ্ধে বিচার চলছে ফেনীর নারী ও শিশুনির্যাতন দমন ট্রাইবুনালে।

আপনার মতামত লিখুনঃ