‘নিষেধাজ্ঞা না মেনে থার্টি ফার্স্ট উদযাপন’

‘নিষেধাজ্ঞা না মেনে থার্টি ফার্স্ট উদযাপন’
‘নিষেধাজ্ঞা না মেনে থার্টি ফার্স্ট উদযাপন’

এফএনএস নিউজ: নতুন বছর শুরুর আধাঘণ্টা আগে থেকেই শুরু হয়েছে নববর্ষ উদযাপন। সেই সাথে রাত ১২টা বাজার সঙ্গে সঙ্গে রাজধানীর আকাশ বর্ণিল হয়ে উঠে নানা রংয়ের আতশবাজির আলোয়। ওড়ানো হয় হাজার হাজার ফানুস। অলিতে গলিতে ফাটানো হয়েছে পটকা। এছাড়াও ঢাকার রাস্তায় হর্ন বাজিয়ে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা করতে দেখা গেছে অনেককে।

এদিকে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও তা খুব একটা মানতে দেখা যায়নি নগরীর বাসিন্দাদের। নাগরিকদের ভাষ্য, ‘সারাবিশ্বের মানুষ নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে আনন্দ উৎসব করে, আমরাও করছি।’

উদযাপনের পক্ষে যুক্তি জানিয়ে মোহাম্মদপুরের বাসিন্দা আহসান নাঈম বলেন, ‘আমরা সারাবছর চলি ইংরেজি ক্যালেন্ডারে। আর থার্টি ফার্স্ট নাইট নিয়ে যতো সমস্যা। এই করা যাবে, সেই করা যাবে না। মানুষ আনন্দ বরতে চায়। তাহলে কেন বাধা দেবেন? কারও ক্ষতি না হলেই হলো।’

মোটরসাইকেল নিয়ে শোভাযাত্রার ব্যাপারে ধানমন্ডি এলাকায় দায়িত্বে থাকা একজন পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, ‘এই যে দলবেঁধে গাড়ি চালাচ্ছে, হর্ন বাজাচ্ছে, এতে যেকোনও সময় দুর্ঘটনা ঘটতে পারে। কোনও একটি গাড়ি এদিক-সেদিক হলে অন্যরাও দুর্ঘটনার শিকার হবে।’ এধরনের উচ্ছৃঙ্খলতার কারণেই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়।

ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের পক্ষ থেকে ইতোমধ্যে বেশ কিছু নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। যা মেনে চলার অনুরোধ জানিয়েছেন ডিএমপি কমিশনার।