নিজেকে লিংকড-ইনে তুলে ধরবেন যেভাবে

নিজেকে লিংকড-ইনে তুলে ধরবেন যেভাবে

লিংকড-ইন পেশাজীবীদের জন্য পৃথিবীর সবচেয়ে বড়ো সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম। তবে লিংকড-ইনের উদ্দেশ্য হলো বিভিন্ন পেশায় যুক্ত থাকা মানুষের পারস্পরিক যোগাযোগ বাড়ানো। ২০১৯ সালের জুনের হিসাব অনুযায়ী লিংকড-ইনে যুক্ত আছেন ৬৩ কোটির বেশি সদস্য। গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো, চাকরিতে নিয়োগের জন্য সবচেয়ে জনপ্রিয় মাধ্যম এই লিংকড-ইন।

অন্যদের সঙ্গে যুক্ত হওয়া : নেটওয়ার্কিং লিংকড-ইনের সবচেয়ে শক্তিশালী দিক। লিংকড-ইনে অন্য কারো সঙ্গে যুক্ত হওয়ার ব্যাপারটিকে কানেকশন বলা হয়। সঠিক তথ্য দিয়ে প্রোফাইলটি পূর্ণ করা হলে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ও বর্তমান বা পুরোনো সহকর্মীদের যুক্ত করে আপনার নেটওয়ার্ক তৈরির পরামর্শ দেওয়া হয়।

পাশাপাশি সম্ভাব্য অন্যান্য ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত হতে পারেন। তবে প্রোফাইল তৈরির সঙ্গে সঙ্গেই বহু মানুষকে যুক্ত করতে গেলে স্বয়ংক্রিয়ভাবে বাধা দেওয়া হয়। আপনার নেটওয়ার্কের অন্যদের কাজ বা দক্ষতা সম্পর্কে জানা থাকলে আপনি রিকমেন্ডেশন যোগ করতে পারেন, একইভাবে তাদেরও অনুরোধ করতে পারেন।

গ্রুপে যুক্ত হওয়া : প্রোফাইল তৈরি করে বিভিন্ন গ্রুপে যুক্ত হতে পারেন। আপনি যে বিষয়ে দক্ষ বা কাজ করতে আগ্রহী, সে ধরনের গ্রুপে যুক্ত থাকলে অন্যরা কী ধরনের কাজ করছে, সে বিষয়ে ধারণা পাওয়া যাবে। একইভাবে গ্রুপ আপনার নিজের নেটওয়ার্ক বড়ো করতে সাহায্য করবে।

নতুন কাজে যুক্ত হওয়া ও কাজ খোঁজা : বিশ্বব্যাপী নতুন কাজ খোঁজা এবং প্রতিষ্ঠানে কর্মী নিয়োগের জনপ্রিয় মাধ্যম লিংকড-ইন। নতুন নতুন চাকরির কথা যেমন জানা যাবে, তেমনি যারা প্রতিষ্ঠানের জন্য অনুসন্ধান করছেন, তারা যেন আপনাকে খুঁজে পান, সে সুযোগও রয়েছে। কাজ খোঁজার ক্ষেত্র পছন্দের নির্দিষ্ট কোনো বিষয়, এলাকা বা দেশ উল্লেখ করার ব্যবস্থা রয়েছে। আবার আপনি যদি চান, নতুন চাকরির জন্য আপনাকে কেউ খুঁজে পাবে না, এমন সুযোগও রয়েছে।

নিয়মিত হালনাগাদ করা : কাজের ক্ষেত্রে নতুন কোনো প্রশিক্ষণ, সাফল্য বা যেকোনো উল্লেখযোগ্য বিষয় নিয়মিতভাবে প্রোফাইলে যুক্ত করতে হবে। পছন্দ ও দক্ষতা অনুযায়ী কাজের সঙ্গে সম্পৃক্ত এমন বিভিন্ন তথ্য ভাগাভাগি করতে পারেন প্রোফাইল থেকে বা প্রাসঙ্গিক গ্রুপে।

এর ফলে নেটওয়ার্কের অন্যরা আপনি এবং আপনার দক্ষতা সম্পর্কে জানার সুযোগ পাবেন। পরিচিত এবং বন্ধুরা যুক্ত আছেন বলেই যে এটি নিয়মিত আড্ডার জায়গা হবে এমন নয়। প্রতিটি সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমেরই একটি উদ্দেশ্য থাকে। সবাই যেসব মাধ্যমের সদস্য হবেন এমন নয়, যেটি প্রয়োজনীয় মনে হবে, সেটিতে আমরা যুক্ত থাকি।

তাই পেশা বা কাজের সঙ্গে প্রাসঙ্গিক নয়, এমন কিছু লিংকড-ইনে প্রচার ও প্রকাশের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকতে হবে। লিংকড-ইনে এসব না করাই উচিত। লিংকড-ইন এমন একটি জায়গা, যেটি দেখে অন্যরা আপনার পরিচয় ও আপনার ব্যাপারে প্রথমিক ধারণা পাবে।

আপনার মতামত লিখুনঃ