টেন্ডুলকার ৪ দিনের টেস্টের বিপক্ষে

টেন্ডুলকার ৪ দিনের টেস্টের বিপক্ষে
টেন্ডুলকার ৪ দিনের টেস্টের বিপক্ষে

এফএনএস স্পোর্টস: চার দিনের টেস্টের বিপক্ষে এরইমধ্যে নিজের মতো জানিয়েছেন ভারত অধিনায়ক বিরাট কোহলি। এবার তার সঙ্গে একমত প্রকাশ করলেন টেস্ট ক্রিকেটের সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক শচীন টেন্ডুলকার

ভারতীয় কিংবদন্তি মনে করেন, দিন কমিয়ে নয় বরং টেস্টকে আকর্ষণীয় করতে বোলিং সহায়ক পিচ তৈরিতে মনো্যােগ দেওয়া উচিত। বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের অবস্থান তুলে ধরেন টেন্ডুলকার।

কোহলির পাশাপাশি অস্ট্রেলিয়ান কিংবদন্তি গ্লেন ম্যাকগ্রাকেও সঙ্গে পাচ্ছেন তিনি। “আমার মনে হয়, প্রথাপ্রেমী সবাই সব সময় ৫ দিনের ম্যাচ উপভোগ করবে, কারণ এখানেই চ্যালেঞ্জ সবচেয়ে বেশি।”

“টেস্টকে সীমিত ওভারের ম্যাচের বড় সংস্করণ হিসেবে দেখাটা আমাদের উচিত নয়।” ২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেওয়া টেন্ডুলকারের টেস্টে মোট রান ১৫ হাজার ৯২১। এই সংস্করণে সর্বোচ্চ ৫১টি সেঞ্চুরির রেকর্ডও তার।

সাম্প্রতিক সময়ে ক্রিকেটের নতুন নতুন সংস্করণ এলেও তার জন্য টেস্টকে বলি দিতে রাজি নন তিনি। “নতুন প্রজন্মের জন্য অনেক নতুন নতুন বিষয় চালু করা হচ্ছে। কিন্তু নতুন কিছু শেখার সময় আপনি নিজের শিকড় ভুলে যেতে পারেন না।”

“প্রথা ঠিক রাখতে টেস্ট ক্রিকেট যেভাবে আছে, সেভাবেই রাখা উচিত।” ২০২৩ টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে বাধ্যতামূলক হতে পারে চার দিনের টেস্ট।

ক্যালেন্ডারে বাড়তি সময় পেতে চলতি বছর চার দিনের ম্যাচের ব্যাপারটি আনুষ্ঠানিকভাবে বিবেচনা করতে পারে আইসিসি। তবে টেন্ডুলকার মনে করেন, টেস্টকে আকর্ষণীয় করে তুলতে চাই প্রাণবন্ত পিচ।

“টেস্ট ক্রিকেটের প্রাণ কী? আমি মনে করি, টেস্ট ক্রিকেটের প্রাণ হচ্ছে একটা ভালো পিচ যেখানে বোলারদের জন্য ম্যাচ জুড়েই যথেষ্ট সাহায্য থাকে।” “আইসিসির উচিত মাঠে আসা দর্শকদের জন্য প্রাণবন্ত উইকেট নিশ্চিত করা।

এমন পিচে খেলা হওয়া উচিত যেখানে বোলাররাও ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা নিতে পারবে।”“ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি-দুই সংস্করণেই বোলারদের পরীক্ষা নেওয়া হয়। তাই একটা সংস্করণ অবশ্যই থাকা দরকার যেখানে ব্যাটসম্যানদের পরীক্ষা নেওয়া হবে।”

আরো পড়ুন:

আপনার মতামত লিখুনঃ