জুতা রাখা নিয়ে তর্ক, তারপর মসজিদে ঢুকে খুন

জুতা রাখা নিয়ে তর্ক, তারপর মসজিদে ঢুকে খুন
জুতা রাখা নিয়ে তর্ক, তারপর মসজিদে ঢুকে খুন

মাদারীপুরের রাজৈরে জুতা রাখা নিয়ে তর্কের জেরে মসজিদে ঢুকে এক ব্যক্তিকে কুপিয়ে হত্যা করা হয়েছে। এ ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ।

উপজেলার আমগ্রাম ইউনিয়নের মঠবাড়ি এলাকায় মঙ্গলবার রাত ৯টার দিকে এ ঘটনা ঘটে বলে রাজৈর থানার ওসি শাজাহান মিয়া জানান।

নিহত মজিবর বেপারি (৫০) ওই এলাকার নওয়াব আলী বেপারির ছেলে। ওসি শাহজাহান বলেন, মজিবরের সঙ্গে তার ফুপাতো ভাই আলী আশরাফের জমি-জমা নিয়ে বিরোধ চলছিল।

মঙ্গলবার এশার নামাজের আগে মসজিদে জুতা রাখা নিয়ে মজিবরের ছেলে রুবেল ব্যাপরীর সঙ্গে আশরাফের ছেলে লিঙ্কনের কথা কাটাকাটি হয়। এ সময় আশরাফও সেখানে উপস্থিত ছিলেন।

“রাতে স্থানীয় একটি মসজিদে তারাবির নামাজ আদায় করতে যান মজিবর। এ সময় আশরাফের লোকজন ধারালো অস্ত্র নিয়ে মসজিদের ভেতরে ঢুকে মজিবরকে এলাপাতাড়ি কুপিয়ে জখম করে।“

পরে তাকে উদ্ধার করে রাজৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসকেরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন বলে জানান ওসি।

তিনি বলেন, এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য একজনকে আটক করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে আশরাফ, তার ছেলে ও জড়িতরা পলাতক রয়েছে। তাদের আটকের জন্য অভিযান চালানো হচ্ছে।

লাশ ময়নাতদন্তের জন্য মাদারীপুর সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে।

আপনার মতামত লিখুনঃ