‘চার্জিং পোর্ট’ বাদ দিচ্ছে অ্যাপল

'চার্জিং পোর্ট' বাদ দিচ্ছে অ্যাপল
'চার্জিং পোর্ট' বাদ দিচ্ছে অ্যাপল

নিজেদের তৈরি প্রযুক্তিপণ্য থেকে যন্ত্রাংশ ও প্রযুক্তি বাদ দিয়ে দেওয়ার রেওয়াজ পুরোনো অ্যাপলের জন্য। পিসি থেকে ফ্লপি ডিস্ক, ল্যাপটপ থেকে ডিস্ক রম বা ইউএসবি ফেলে দেওয়ার পর এবার মোবাইল ফোন থেকে চার্জিং পোর্ট ফেলে দেওয়ার দিকেই সম্ভবত যাচ্ছে অ্যাপল।

২০২১ সালের হাই-এন্ড আইফোন মডেল থেকে বাদ দেওয়া হতে পারে লাইটনিং কানেক্টর, ডিভাইসটির চার্জিং ব্যবস্থা নির্ভর করবে ওয়্যারলেস চার্জিংয়ের ওপর, বৃহস্পতিবার এমনটাই জানিয়েছেন টিএফ সিকিউরিটিজ-এর অ্যাপল বিশ্লেষক মিং-চি কুয়ো — খবর সিএনবিসি’র।

কুয়োর ধারণা, লাইটনিং কেবল বাতিল এবং অন্যান্য আপডেটের কারণে হাই-এন্ড আইফোনগুলোর বিক্রি ও দাম বাড়াবে। চার্জিং কানেক্টর ছাড়া আইফোনগুলো “পুরোপুরি তারবিহীন অভিজ্ঞতা” দেবে বলে জানিয়েছেন তিনি। কয়েক বছর ধরেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে আইফোন থেকে লাইটনিং পোর্ট বাদ দেবে অ্যাপল। ২০১৭ সালে কুয়ো ধারণা করেছিলেন লাইটনিং পোর্ট বাদ দিয়ে ইউএসবি টাইপ-সি ব্যবহার করতে পারে আইফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠানটি।

ইতোমধ্যেই স্মার্টফোন খাতে বিস্তৃত পরিসরে ব্যবহার হচ্ছে ইউএসবি টাইপ-সি কানেক্টর। এরপরও চলতি বছর আইফোন ১১, আইফোন ১১ প্রো এবং আইফোন ১১ প্রো ম্যাক্স মডেলগুলোতে লাইটনিং পোর্ট রেখেছে অ্যাপল। ইতোমধ্যে কিছু পণ্যে ইউএসবি-সি কানেক্টর যোগ করেছে প্রতিষ্ঠানটি। নতুন আইফোনে আনা হয়েছে ফাস্ট চার্জিং সমর্থন। এই আইফোনগুলো ৩০ মিনিটে ৫০ শতাংশ চার্জ হবে বলে দাবি করেছে অ্যাপল।

আপনার মতামত লিখুনঃ