গুচ্ছ পদ্ধতিতে বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর ভর্তি পরীক্ষা ৩০ নভেম্বর

২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষে দেশের সকল পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ চূড়ান্ত করতে আগামী ৫ আগস্ট পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ের  উপাচার্যদের বৈঠক ডেকেছে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশন (ইউজিসি)। সংশ্লিষ্ট সূত্র থেকে জানা যায় গত সোমবার এ বৈঠক হওয়ার কথা থাকলেও গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তির ব্যাপারে সব বিশ্ববিদ্যালয় একমত না হওয়ার কারণে এ বৈঠক পেছানো হয়েছে।

তবে, এ বছর থেকেই শুরু হচ্ছে দেশের পাঁচটি কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় ও কৃষিসংশ্লিষ্ট দুইটি বিশ্ববিদ্যালয়ের  ২০১৯-২০ নতুন শিক্ষাবর্ষের স্নাতক প্রথম বর্ষের সমন্বিত ভর্তি পরীক্ষা। দেশের অপর ৩০টি পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে নতুন শিক্ষাবর্ষে ভর্তির তারিখ নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা কাটছে না।

এ গুচ্ছভিত্তিক ভর্তি পদ্ধতিটির নেতৃত্ব দেবেন বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়। বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ড. লুৎফুল হাসান বলেন, একটি পরীক্ষার মাধ্যমেই সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির সুযোগ পাবে ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা। সাতটি বিশ্ববিদ্যালয়েই ভর্তি পরীক্ষার কেন্দ্র থাকবে। ভর্তি ইচ্ছুক শিক্ষার্থীরা তাদের পছন্দ অনুযায়ী কেন্দ্র ঠিক করবে। গুচ্ছ পদ্ধতিতে অংশ গ্রহণ করা বিশ্ববিদ্যালয় গুলোর একটি সূত্র থেকে জানা যায়, আগামী ৩০ নভেম্বর শনিবার এ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষার সম্ভাব্য তারিখ নির্ধারণ করা হয়েছে। আগামী ৫ আগস্ট অনুষ্ঠিত বিশ্ববিদ্যালয় পরিষদের বৈঠকে আনুষ্ঠানিকভাবে তা ঘোষণা করা হতে পারে। কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়গুলো হলো বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (ময়মনসিংহ), শেরেবাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (ঢাকা), বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় (গাজীপুর), সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, খুলনা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম ভেটেরিনারি ও অ্যানিমেল সায়েন্সেস বিশ্ববিদ্যালয় ও পটুয়াখালী বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়।

এদিকে এবারও গুচ্ছ পদ্ধতিতে দেশের সকল মেডিকেল কলেজের ভর্তি পরীক্ষা হবে। স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র থেকে জানা যায়, দেশব্যাপী মহামারী আকার ধারণ করা ডেঙ্গুর উদ্ভূত পরিস্থিতির সামাল দিতেই মন্ত্রণালয় হিমশিম খাচ্ছে। ভর্তির পরীক্ষার বিষয়টি নিয়ে এ মুহূর্তে ভাবার সুযোগ নেই। তবে, আগামী কিছু দিনের মধ্যে ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ও বিডিএস ভর্তি পরীক্ষার নিয়মাবলি চূড়ান্ত করা হবে। গত বছরের নিয়ম অনুযায়ী এবারও মেডিকেল কলেজ গুলোর ভর্তি নেওয়া হবে বলে জানা যায়। মেডিকেল ও ডেন্টালে একজন শিক্ষার্থী মোট দুইবার ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবে।

অন্য দিকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের অধিভুক্ত কলেজগুলোতে ভর্তি পরীক্ষা নয়, এসএসসি ও এইচএসসির ফলাফলের ভিত্তিতে স্নাতক (সম্মান) শ্রেণিতে শিক্ষার্থী ভর্তি নেয়া হবে।

বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তি নিয়ে সীমাহীন ভোগান্তি ও দুর্ভোগ প্রসঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী ডা: দীপু মনি বলেছেন, গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তির বিষয়ে চেষ্টা চলছে। কিছু কিছু বিশ্ববিদ্যালয় নিজেদের পরীক্ষা নিজেরাই নিতে চায়। আর কিছু কিছু বিশ্ববিদ্যালয় বিষয়টি নিয়ে ইতিবাচক। বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী পরিষদ এটি নিয়ে আলোচনা করছে। তবে আশা করা যায় আগামী বছর থেকে বেশির ভাগ বিশ্ববিদ্যালয়ে গুচ্ছ পদ্ধতিতে ভর্তি পরীক্ষা নেওয়া হবে।

আপনার মতামত লিখুনঃ