কে হবেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি?

বিপিএলে কে হচ্ছেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি
মুস্তাফিজুর রহমানের চেয়ে আপাতত এগিয়ে মেহেদি হাসান রানা

এফএনএস স্পোর্টস: দুজনের বোলিংয়ে মিল অনেক। শক্তির জায়গাগুলো একই ধরনের। এবারের বিপিএলে দুজনের লড়াইও চলছে তুমুল। কে হবেন সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি! তুলনায় অভিজ্ঞ ও বড় তারকা মুস্তাফিজুর রহমানের চেয়ে আপাতত এগিয়ে মেহেদি হাসান রানা।

শুক্রবার রাতের ম্যাচে রংপুর রেঞ্জার্সের হয়ে ২ উইকেট নিয়ে উইকেটের তালিকায় শীর্ষে উঠেছিলেন মুস্তাফিজ। শনিবার দুপুরে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের হয়ে ৩ উইকেট নিয়ে আবার নিজেকে ওপরে তুলে নিয়েছেন মেহেদি রানা। তার উইকেট এখন ১৭টি, মুস্তাফিজের ১৬। মুস্তাফিজ ম্যাচ খেলেছেন ১০টি। মেহেদি রানা তার ওপরে আছেন ২টি ম্যাচ কম খেলেই। বোলিং গড় ও স্ট্রাইক রেটেও এগিয়ে মেহেদি রানা। ওভার প্রতি রান অবশ্য খানিকটা কম দিয়েছেন মুস্তাফিজ।

এই মেহেদি রানাকেই এবার প্লেয়ার্স ড্রাফটে নেয়নি কোনো দল। পরে দুই সিনিয়র ক্রিকেটার মাহমুদউল্লাহ ও ইমরুল কায়েসের পরামর্শে তাকে নেয় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। শুরু থেকেই দারুণ বোলিংয়ে তিনি নিজেকে চিনিয়েছেন নতুন করে। চট্টগ্রাম সবার আগে শেষ চার নিশ্চিত করে ফেলায় বড় অবদান এই বাঁহাতি পেসারের।

মুস্তাফিজকে এবার বিপিএলে দেখা গেছে ভিন্ন দুটি চেহারায়। প্রথম চার ম্যাচে ছিলেন ধারহীন, খরুচে। বোলিং ছিল হতাশাজনক, প্রবল সমালোচনাও হচ্ছিল। কিন্তু এরপরই ঘুরে দাঁড়ান দারুণভাবে। রাজশাহী রয়্যালসের বিপক্ষে একটি ম্যাচ ছাড়া বাকি সব ম্যাচেই তার বোলিং ছিল দুর্দান্ত।

শুধু এই দুজনই নন, এবারের বিপিএলে সব মিলিয়েই বাংলাদেশের পেসারদের জয়জয়কার। ১৩ উইকেট করে নিয়ে উইকেট শিকারির তালিকায় যৌথভাবে তিনে আছেন রুবেল হোসেন ও ইবাদত হোসেন। দুই বিদেশি মুজিব উর রহমান ও লুইস গ্রেগোরিও অবশ্য নিয়েছেন ১৩ উইকেট। ১২ উইকেট নিয়ে চারে আছেন দেশের আরেক পেসার শহিদুল ইসলাম। এমনকি সৌম্য সরকারও নিয়েছেন ১১ উইকেট।