করোনাভাইরাস নিষ্ক্রিয়ে অ্যান্টিবডির সন্ধান

করোনাভাইরাস নিষ্ক্রিয়ে অ্যান্টিবডির সন্ধান

স্টাফ রিপোর্টার: মানবদেহের কোষে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিষ্ক্রিয় করে দেওয়ার মতো অ্যান্টিবডির সন্ধান পেয়েছেন নেদারল্যান্ডসের গবেষকরা।

আর এটিকে করোনা চিকিৎসার ক্ষেত্রে দারুণ সম্ভাবনায় বলে উল্লেখ করেছেন বিজ্ঞানীরা।

ন্যাচার কমিউনিকেশন ম্যাগাজিনে প্রকাশিত আর্টিকেল থেকে জানা গেছে, ওই অ্যান্টিবডি নতুন করোনাভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় ও অসাড় করে দিতে সক্ষম।

যা করোনা চিকিৎসার ক্ষেত্রে দারুণ সম্ভাবনাময়। যদিও এটা এখনো কোনো প্রাণী কিংবা মানুষের শরীরে প্রয়োগ করে দেখা হয়নি।

আটরেক্ট বিশ্ববিদ্যালয় ও এরাসমাস মেডিকেল সেন্টারের গবেষণাগারে করোনাভাইরাসের স্পাইক প্রোটিন ব্যবহার করে হিউম্যানাইজড ইঁদুর এর শরীরে প্রয়োগ করে দেখা হয়েছে।

তাতে দেখা যায় ওই অ্যান্টিবডি কোষে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রুখে দিচ্ছে। এটা কোষে করোনাকে নিষ্ক্রিয় ও অসাড় করে দেওয়ার অ্যান্টিবডি উৎপাদন করছে।

যেটা ভাইরাসের দুটি প্যাথোজেনকেই নিষ্ক্রিয় করে দিতে সক্ষম। গবেষক ও বিজ্ঞানীরা এটা নিয়েই বেশ আশাবাদী হয়ে উঠেছেন।

যদিও বিষয়টি একেবারেই প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। এটা মানবদেহেও কাজ করবে কিনা সেটা এখনো অনেক দূরের বিষয়।

এ বিষয়ে ওয়ারউইক মেডিকেল স্কুলের সাম্মানিক ক্লিনিক্যাল লেকচারার গিল বলেছেন, ল্যাব টেস্টে আমরা এমনই একটি অ্যান্টিবডির সন্ধান পেয়েছি যেটা ভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় করে দিতে পারে।

এটার মানে এই নয় যে এই অ্যান্টিবডি করোনা আক্রান্ত মানুষের শরীরেও একইভাবে কাজ করবে। এমনটা আমরা প্রত্যাশা করতে পারি না। তবে এটা খুবই সম্ভাবনাময়।

এখন দেখার বিষয় গবেষক ও বিজ্ঞানীরা এটার উন্নয়ন সাধন করে মানুষের শরীরে প্রয়োগ উপযোগী করে তুলতে পারেন কিনা।

যেটা মানুষের শরীরেও প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসকে নিষ্ক্রিয় ও অসাড় করে দিয়ে বিশ্বের কোটি কোটি মানুষকে স্বস্তি দিবে।

আরও পড়ুন

আপনার মতামত লিখুনঃ