এফএ কাপের ফাইনালে ম্যানসিটি : চার শিরোপা জয়ের সুযোগ
এফএ কাপের ফাইনালে ম্যানসিটি : চার শিরোপা জয়ের সুযোগ

এফএ কাপের ফাইনালে উঠে চার শিরোপা (কোয়াড্রপল) জয়ের সম্ভাবনা জাগিয়ে রাখল ম্যানচেস্টার সিটি। শনিবার গাব্রিয়েল জেসুসের গোলে ব্রাইটনকে ১-০ গোলে হারিয়েছে প্রিমিয়ার লীগ চ্যাম্পিয়নরা।
এই জয়ের ফলে আগামি ১৮ মে ওয়েম্বলিতে টুর্নামেন্টের ফাইনালে ওয়াটফোর্ড অথবা উলভেসের মোকাবেলা করবে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা। ওই ম্যাচে জয় পেলেই ইংলিশ ফুটবলের ইতিহাসে প্রথমবারের মত ট্রেবল শিরোপা জয়ের পথটি অনেকটাই সুগম হবে সিটিজেনদের জন্য।

শনিবার বিকেলে অনুষ্ঠিত ম্যাচ শুরুর মাত্র চার মিনিটের মাথায় জেসুস গোল দিলে মনে হচ্ছিল সহজ একটি জয় পেতে যাচ্ছে ম্যানচেস্টার সিটি। কিন্তু চ্যাম্পিয়ন্স লীগের কোয়ার্টার ফাইনালের দিকে নজর রাখা দলটি এরপর বড় কোন ঝুঁকিতে যায়নি। আগামি মঙ্গলবার ইউরোপীয় আসরের প্রথম লেগে টটেনহ্যামের মোকাবেলা করবে গার্দিওলা বাহিনী।

প্রথম গোলের পর রেফারির একটি বিতর্কিত সিদ্ধান্ত রুস্ট করে ব্রাইটনকে। ৩০ মিনিটের মাথায় তাদের উইঙ্গার আলিরেজা জাহানবকসকে বিপজ্জনকভাবে আঘাত করার পরও রেফারি লাল কার্ড দেখাননি সিটি ডিফেন্ডার কেইল ওয়াকারকে। এই জয়ের পর টটেনহ্যামের বিপক্ষে ম্যাচের আগে লন্ডনেই অবস্থান করবে সিটিজেনরা। সপ্তাহের মধ্যভাগে টটেনহ্যামের নতুন স্টেডিয়ামে স্বাগতিক দলের মোকাবেলা করবে তারা। শুক্রবার দলের সঙ্গেই ব্রাইটন সফরে ছিলেন সিটির আর্জেন্টাইন সুপার স্টার সার্জিও এগুয়েরো। কিন্তু পেশীর টানজনীত সামান্য ইনজুরিতে থাকা এই খেলোয়াড়কে মাঠে নামিয়ে আর কোন ঝুঁকি নিতে চাননি গার্দিওলা।

আর ওই সুযোগে সিটিজেনদের হয়ে আক্রমণভাগের দায়িত্ব কাঁধে তুলে নেন জেসুস। এই ব্রাজিলীয় আদায় করে নেন মৌসুমের ১৮তম গোলটিও। তবে কেভিন ডি ব্রুইনার অসাধারণ ক্রসের বলটিকে গোলে পরিণত করাটা তার জন্য খুব একটা সহজ কাজ ছিল না। এই নিয়ে তৃতীয়বারের মত প্রথম ৫ মিনিটের মধ্যে গোল পেল সিটিজেনরা। কিন্তু প্রিমিয়র লীগে ফুলহ্যাম ও কার্ডিফের বিপক্ষে তারা যতটা সহজে জয়লাভ করেছে, ততটা সহজ ভাবে এই ম্যাচে জয় নিশ্চিত করতে পারেনি। বিশেষ করে প্রথমার্ধের পুরো ৪৫ মিনিট একের পর এক আক্রমণ রচনা করে সিটিজেনদের হুমকিতেই রেখেছিল ব্রাইটন। কিন্তু ওয়াকার লাল কার্ড দেখা থেকে বেঁচে যাবার পর ম্যাচের চেহারা একেবারেই পাল্টে যায়। মাঠের পুরো নিয়ন্ত্রণই চলে আসে সিটিজেনদের হাতে। শেষ পর্যন্ত অবশ্য ওই ১-০ গোলের ব্যবধানে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়ে পেপ গার্দিওলার শিষ্যরা।

আপনার মতামত লিখুনঃ