এনআরসি-সিএবি’র প্রতিবাদে জাবি শিক্ষার্থীদের সংহতি

এনআরসি-সিএবি’র প্রতিবাদে জাবি শিক্ষার্থীদের সংহতি

ডেস্ক রিপোর্টঃ ভারতে জাতীয় নাগরিক পঞ্জি (এনআরসি) এবং নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএবি)’র প্রতিবাদে ও ভারতে চলমান আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করে এবার রাস্তায় নেমেছে সমাজতান্ত্রিক ছাত্র ফ্রন্ট জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় শাখার নেতা কর্মীরা।

সোমবার দুপুরে এনআরসি ও সিএবি বিরোধী আন্দোলনে সংহতি প্রকাশ করে মানববন্ধন করেন সংগঠনটির নেতা কর্মীরা।

এছাড়া সংহতি মানববন্ধনে সম্প্রতি ডাকসুতে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণু পরিষদের নেতা কর্মীদের ওপরে হামলার প্রতিবাদ জানান তারা।

মানববন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে অংশগ্রহণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিবেশ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক জামাল উদ্দিন রুনু, কম্পিউটার সাইন্স অ‌্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের অধ্যাপক আবু সাঈদ মো. মোস্তাফিজুর রহমান এবং ফার্মেসি বিভাগের অধ্যাপক মাসুম শাহরিয়ার।

সংহতি মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সংগঠক আবু সাঈদের সঞ্চালনায় ছা্ত্র ফ্রন্টের জাবি শাখার সভাপতি সুস্মিতা মরিয়ম বলেন,

‘আজকে ভারতের সকল মানুষ যেভাবে ঐক্যবদ্ধ হয়েছে সেটি আমাদের জন্য শিক্ষা। ভারতে নিপীড়িত মানুষের পক্ষে যেমন সমগ্র জনতা দাঁড়িয়েছে, বাংলাদেশেও যে ফ্যাসিস্ট শাসন চলছে, তার বিরুদ্ধে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে।

কোন সাম্প্রদায়িক বিভাজন, কোন হামলা মামলা অত্যাচার এই ঐক্যবদ্ধতাকে দমাতে পারবে না।’

ছাত্রফন্টের বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সাংগঠনিক সম্পাদক শোভন রহমান বলেন, ‘ভারতের এই ধরণের নিপীড়ন আসলে ভারতের অর্থনৈতিক মন্দা এবং জনজীবনের সংকট থেকে মানুষের নজর ঘুড়িয়ে দেওয়ার এক অপচেষ্টা। কিন্তু ধর্ম বর্ণ নির্বিশেষে মানুষ একত্রিত হয়ে সেই অপচেষ্টাকে রুখে দিয়েছে।

একই সাথে আমরা দেখি গতকাল ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ নাম নিয়ে যে হামলা চালানো হয়েছে, সেটি কোন মানবিক পর্যায়ে পড়ে না।

মুক্তিযুদ্ধ মঞ্চ মুক্তিযুদ্ধের সকল গৌরবকে মানুষের সামনে ধুলিস্যাৎ করে দিয়েছে। আমরা সারাদেশে এই সংগঠনের সকল কার্যক্রম প্রতিহত করার আহ্বান জানাই।’

ডাকসুতে হামলার প্রতিবাদ জানিয়ে সংগঠনটির বিশ্ববিদ্যালয় শাখার সহ-সভাপতি সম্পদ অয়ন মারান্ডি বলেন, ‘এই হামলা মামলার বিচার আমরা কার কাছে চাইবো?

কোন ঘটনার কোন বিচার হয়েছে? যারা ন্যূনতম গণতান্ত্রিক চর্চার তোয়াক্কা না করে রাতের ভোটে নির্বাচিত হয়ে আছে তারা ক্ষমতা টিকিয়ে রাখার স্বার্থেই আজ নতজানু পররাষ্ট্রনীতি অবলম্বন করে চলে এবং টুশব্দ করলেও নামে বেনামে হামলা চালায়।

আমরা এমন ন্যক্কারজনক হামলার প্রতিবাদ জানাই।’