উড়ে আসা যে কোনো ইরানি ড্রোন ধ্বংস করবে যুক্তরাষ্ট্র

উড়ে আসা যে কোনো ইরানি ড্রোন ধ্বংস করবে যুক্তরাষ্ট্র

হরমুজ প্রণালীতে মার্কিন জাহাজের কাছ ঘেঁষে উড়ে আসা যে কোনো ইরানি চালক বিহীন বিমান (ড্রোন) গুলি করে ভূপাতিত করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রেসিডেন্ট ডনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের এক কর্মকর্তা।
বৃহস্পতিবার ইরানের একটি ড্রোন ভূপাতিত করার প্রমাণ ওয়াশিংটনের কাছে আছে বলেও দাবি করেছেন ওই কর্মকর্তা। তেহরান হরমুজ প্রণালীতে তাদের কোনো ড্রোনই খোয়া যায়নি বলার পর মার্কিন কর্মকর্তা এ দাবি করলেন।

শুক্রবার নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এ কর্মকর্তা সাংবাদিকদের কাছে এক সংবাদ ব্রিফিংয়ে বলেছেন, “ইরানি ড্রোন আমাদের জাহাজের কাছ ঘেঁষে উড়লে সেগুলোকে একের পর এক ভূপাতিত করা হবে।”
তিনি বলেন, “যুক্তরাষ্ট্রের নৌবাহিনীর যুদ্ধজাহাজ বক্সার যে ইরানের ড্রোন ভূপাতিত করেছে তার খুবই সুস্পষ্ট প্রমাণ আমাদের কাছে আছে।” ওই ঘটনার ভিডিও পেন্টাগন প্রকাশ করতে পারে বলেও জানান তিনি।
হরমুজ প্রণালীকে ঘিরে ওয়াশিংটন-তেহরান ক্রমবর্ধমান উত্তেজনার মধ্যেই সেখানে বৃহস্পতিবার ইরানি ড্রোন ভূপাতিতের কথা জানায় যুক্তরাষ্ট্র।

“ড্রোনটি ইউএসএস বক্সারের ১ হাজার গজের মধ্যে উড়ে এসেছিল, সরে যাওয়ার জন্য সেটিকে কয়েকবার বলা হলেও ড্রোনটি তা অবজ্ঞা করে,” হোয়াইট হাউজের এক অনুষ্ঠানে এমনটিই জানান প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প।
“নিজেদের লোকজন, স্থাপনা ও স্বার্থ রক্ষার অধিকার রয়েছে যুক্তরাষ্ট্রের। তাৎক্ষণিকভাবে ওই ড্রোনটি ধ্বংস করে দেওয়া হয়,” বলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।

পেন্টাগন জানিয়েছে, হরমুজ উপকূলে চলাচলের সময় উড়ে আসা একটি ড্রোনের বিরুদ্ধে ‘আত্মরক্ষামূলক ব্যবস্থা’ নিয়েছে ইউএসএস বক্সার।

কিন্তু শুক্রবার ইরানের উপ-পররাষ্ট্র মন্ত্রী আব্বাস আরাকচি ইরানি ড্রোন ধ্বংসের দাবিকে উড়িয়ে দেন। মার্কিন জাহাজ ভুল করে নিজেদেরই কোনো ড্রোন ধ্বংস করেছে কিনা, ওয়াশিংটনকে তাও খতিয়ে দেখতে বলেন তিনি।

আপনার মতামত লিখুনঃ