ইতিহাসে প্রতিদিন আজ (মঙ্গলবার) ১৬ জুলাই’২০১৯

১৯৪৫ সালের ১৬ই জুলাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র প্রথম পারমাণবিক বোমার পরীক্ষামূলক বিস্ফোরণ ঘটায়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের শত্রুপক্ষ জাপানের ওপর পরমাণু বোমা হামলা চালানোর উদ্দেশ্যে ঐ পরীক্ষা চালানো হয়। দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের শেষভাগে ইউরোপে যুদ্ধ শেষ হয়ে গেলেও জাপান ব্যাপক মার্কিন বোমাবর্ষণের মোকাবিলা করে মার্কিন যুদ্ধজাহাজগুলোর ব্যাপক ক্ষতিসাধণ করছিল। এ অবস্থায় ১৯৪৫ সালের আগস্ট মাসে মার্কিন সরকার জাপানের হিরোসিমা ও নাগাসাকি শহরে পরমাণু বোমা হামলা চালায়। মানবতাবিরোধী ঐ হামলায় লাখ লাখ মানুষ হতাহত হয় এবং ঐ দুটি জাপানী শহর সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে যায়।

১৯৭৩ সালের ১৬ই জুলাই আফগানিস্তানের সেনা কর্মকর্তা জেনারেল দাউদ খান সাবেক সোভিয়েত ইউনিয়নের সহযোগিতায় এক অভ্যূত্থানের মাধ্যমে আফগান শাহ মোহাম্মাদ জহিরকে পদচ্যূত করে দেশে প্রজাতান্ত্রিক শাসন ব্যবস্থা চালু করেন। দুই বছর পর দাউদ খান নিজেকে আফগানিস্তানের প্রেসিডেন্ট ঘোষণা করলে দেশে ব্যাপক গণআন্দোলন শুরু হয়।

কিন্তু দাউদ খান কঠোর হাতে সে আন্দোলন দমন করেন এবং রাজপথে সাধারণ মানুষের রক্তের ¯্রােত বইয়ে দেন। দাউদ খানের শাসনামলে আফগানিস্তানে মার্কিনীদের তুলনায় রুশ প্রভাব ব্যাপকভাবে বৃদ্ধি পায়। ১৯৭৮ সালের এপ্রিল মাসে সোভিয়েত ইউনিয়নের পদলেহী সেনা কর্মকর্তা নুর মোহাম্মাদ তুর্কি, আরেকটি অভ্যূত্থানের মাধ্যমে জেনারেল দাউদ খানকে হত্যা করে ক্ষমতা দখল করেন।

১৪৫২ বছর আগে বিশ্বনবী হযরত মুহাম্মাদ (সাঃ) এর হিজরতের ২৩ বছর পূর্বে আজকের দিনে অর্থাৎ ১৩ই রজব, হযরত আলী (আঃ) পবিত্র কাবা ঘরের ভেতর জন্মগ্রহন করেন। তার মায়ের নাম ছিল ফাতেমা বিনতে আসাদ এবং বাবা ছিলেন আবু তালেব। হযরত আলী (আঃ) শিশুকাল থেকেই রাসূলুল্লাহ’র তত্ত্বাবধানে প্রতিপালিত হন এবং তিনি ছিলেন ইসলাম গ্রহনকারী প্রথম মুসলমান। হিজরি দ্বিতীয় সালের শেষের দিকে রাসূলুল্লাহর কন্যা হযরত ফাতেমা সালামুল্লাহি আলাইহার সাথে হযরত আলীর বিয়ে হয়।

একমাত্র জংগে তাবুক ছাড়া বাকি সকল যুদ্ধে হযরত আলী (আঃ) রাসূলুল্লাহ (সাঃ) এর সঙ্গে ছিলেন এবং রাসূলের সকল দুঃখ কষ্টের সাথী ও সহযোগী হয়েছিলেন। হযরত আলী (আঃ) মহান বীর ও যোদ্ধা হলেও তিনি ছিলেন অত্যন্ত দয়ালু। এ কারণে তিনি ছিলেন সমাজের নির্যাতিত মানুষের পৃষ্ঠপোষক এবং সব ধরনের অত্যাচারের প্রতিরোধকারী। শাসনকার্য পরিচালনার ক্ষেত্রে হযরত আলী (আঃ) ছিলেন ন্যায়বিচারের প্রতীক। আল্লাহর ইবাদতে তিনি এতটা মশগুল হয়ে পড়তেন যে দুনিয়ার অন্য কোন বিষয়ে তার খেয়াল থাকতো না।

প্রায় ৫ বছর মুসলিম সা¤্রাজ্যের সর্বোচ্চ পদের দায়িত্ব পালনের পর হিজরি ৪০ সালে বর্তমান ইরাকের কুফা মসজিদে নামাজরত অবস্থায় একজন নির্বোধ খারেজির বিষাক্ত তরবারীর আঘাতে আহত হন এবং এর দুই দিন পর ৬৩ বছর বয়সে শাহাদাতের অমীয় সুধা পান করেন। হযরত আলী আঃ এর পবিত্র জন্মবার্ষিকীতে শ্রোতাদের শুভেচ্ছা জানিয়ে তার একটি মূল্যবান বাণী আপনাদের শোনাতে চাই। তিনি বলেছেন, “মানুষের সাথে এমন ব্যবহার করবে, যাতে তুমি মারা গেলে তারা তোমার জন্য কাঁদে। আর যতদিন জীবিত থাকো, তোমার সাথে সদয় আচরণ করে।”

হযরত মুহাম্মদ (সা:)-এর মক্কা থেকে মদিনায় হিযরত । এ দিন থেকে হিজরি সন গণনা শুরু (৬২২)
স্পেনের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী নেপালসের নেতা মাসানিয়েলো আততায়ীর হাতে নিহত (১৬৪৭)
স্টকহোম ব্যাংক থেকে ইউরোপে প্রথম ব্যাংক নোট ইসু (১৬৬১)
ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের প্রচেষ্টায় লর্ড ক্যানির হিন্দু বিধবা বিবাহকে বৈধতা দান (১৮৫৬)
বাগেরহাটে প্রথম ব্রিটিশ পণ্যদ্রব্য বর্জন আন্দোলন শুরু (১৯০৫)
বলশেভিক অভ্যুখানে রাশিয়ার জার দ্বিতীয় নিকোলাশ সপরিবারে নিহত (১৯১৮)
বাগদাদে ইরাকের প্রথম পার্লামেন্ট শুরু (১৯২৫)
ভারতবর্ষের ইতিহাস ঐতিহ্য সংস্কৃতি বিষয়ক গবেষণা প্রতিষ্ঠান ইন্ডিয়া রিসার্চ ইনস্টিটিউট প্রতিষ্ঠিত (১৯৩২)
বেলজিয়ামের রাজা তৃতীয় লিওপোল্ডের সিংহাসন ত্যাগ। তার পুত্র বাউদুইনের ক্ষমতারোহন (১৯৫১)
ইরাকের প্রেসিডেন্ট হিসেবে সাদাম হোসেনের দায়িত্ব গ্রহণ (১৯৭৯)
সোভিয়েত প্রজাতন্ত্র ইউক্রেনের সার্বভৌমত্ব ঘোষণা (১৯৯০)
ফিলিপাইনে ভূমিকম্পে ১৬ শতাধিক নিহত (১৯৯০)
মিলোসেভিচ যুগোস্লাভিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত (১৯৯৭)
অর্ধ শতাধিক বছর বৈরীতার পর রাশিয়া-চীন বন্ধুত্ব চুক্তি স্বাক্ষর (২০০১)

আপনার মতামত লিখুনঃ