ইতিহাসের এই দিনে আজ (রোববার) ০৮ এপ্রিল’২০১৯

ইতিহাসের এই দিনে আজ (রোববার) ০৮ এপ্রিল’২০১৯
ইতিহাসের এই দিনে আজ (রোববার) ০৮ এপ্রিল’২০১৯

বীরশ্রেষ্ঠ মুসী আবদুর রউফের শাহাদাত
শত্রুপক্ষের সঙ্গে সম্মুখ যুদ্ধে ১৯৭১ সালের এই দিনে বীরের মতো প্রাণ দেন বীরশ্রেষ্ঠ ল্যান্সনায়েক মুসী আবদুর রউফ। ১৯৭১ এর ২৫ মার্চ স্বাধীনতা যুদ্ধের শুরুতে চট্টগ্রামে ১১ নম্বর উইংয়ে চাকরিরত ছিলেন তিনি। যুদ্ধে যোগ দেন ইষ্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের সঙ্গে। রেজিমেন্টের একটি কোম্পানি পার্বত্য চট্টগ্রামে রাঙামাটি-মহালছড়ি জলপথ প্রতিরোধের জন্যে চিংড়ি খালের বুড়িঘাটে অবস্থান নেয়। পাকিস্তানি বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখ যুদ্ধে অবিরাম গোলা বর্ষণে সহযোদ্ধারা পিছু হটলেও তিনি যুদ্ধ চালাতে থাকেন। মর্টারের গোলায় শহীদ হন তিনি। স্বাধীনতার পর তাকে বীরশেষ্ঠ সম্মানে ভূষিত করা হয়। রইফের জন্ম ১৯৪৩ সালে ফরিদপুরের বোয়ালখালীতে। কৈশোরে পিতৃহীন হয়ে যাওয়ায় লেখাপড়া চালাতে পারেননি। অষ্টম শ্রেণী পাসের পর ৬৩ তে ভর্তি হন ইষ্ট পাকিস্তান রাইফেলস-এ।

১৯৭০ সালের এদিনে ইসরাইলের যুদ্ধ বিমান কায়রো থেকে ৮০ কিলোমিটার উত্তরে বাহরুল বাকের স্কুলে হামলা চালালে পাঠরত ৪৬টি শিশু নির্মমভাবে শাহাদাত বরণ করে। উল্লেখ্য, ১৯৭০ সালের প্রথম তিনমাসে ইহুদীবাদী ইসরাইল উত্তর পূর্ব সিরিয়ার বেসামরিক জনবসতির উপর বিমান হামলা চালায়। সে বছরের ১২ ই ফেব্রুয়ারী ইসরাইলীরা একটি কারখানায় বোমা বর্ষণ করলে কর্মরত ১৬৮ জন শ্রমিক হতাহত হয়। তাছাড়া তারা ঐ একই সালের ৩১ শে মার্চ মিশরের উত্তর পূর্বাঞ্চলে হামলা চালালে ১২ জন বেসামরিক মানুষ নিহত ও আরো ৩৫ জন আহত হয়।

১৯৮০ সালের এ দিনে প্রখ্যাত আলেম আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ মোহাম্মাদ বাকের সাদর এবং তার বোন বিনতুল হুদা ইরাকের বাথ সরকারের হাতে শহীদ হন। ছোট বেলায় আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ মোহাম্মাদ বাকের সাদর কোরআন এবং ধর্মীয় শিক্ষা অর্জন করেন। যুবক বয়সেই তিনি ইজতেহাদের পর্যায়ে পৌঁছতে সক্ষম হন। ইরাকের নাজাফের ধর্মতত্ত্ব শিক্ষা কেন্দ্রের তিনি একজন শিক্ষক ছিলেন। উসুলে ফিকাহ শাস্ত্রের ক্ষেত্রে তার দৃষ্টিভঙ্গী বড় বড় আলেমদের দৃষ্টি আকর্ষণ করতো। মেধাবী আলেম বাকের সাদর ইরাকের যুব সমাজ এবং ছাত্রদের মাঝে খাঁটি ইসলামের পরিচয় তুলে ধরেন এবং প্রাচ্য ও পাশ্চাত্যের মতবাদগুলোর অসারতা প্রমাণ করেন। ইসলাম এবং ঈমানী সচেতনার প্রাণ সঞ্চারী চিন্তা ী চেতনার তুলে ধরার মাধ্যমে ইরাকের সংগ্রামী জনগণকে নতুন পর্যায়ে উপনীত করেন।

আয়াতুল্লাহ সাদর অল্প সময়ের জন্যে ইরাকী জনগণের রাজনৈতিক ও আদর্শিক নেতৃত্বে পরিণত হন। কিন্তু তৎকালীন ইরাক সরকার আয়াতুল্লাহ সাদরের তৎপরতাকে তাদের জন্যে বিপদজনক বলে মনে করে আর তাই তাকে এবং তার বোনকে আটক করে। এ ঘটনায় দেশের সচেতন জনগণ ও আলেম সমাজ সরকারের বিরুদ্ধে তীব্র প্রতিবাদ জানানো সত্ত্বেও এই মহান ব্যক্তিত্ব ও তার বোনকে ইতিহাসের এ দিনে শহীদ করে বাথ সরকার। আয়াতুল্লাহ সাইয়্যেদ মোহাম্মাদ বাকের ছিলেন ইসলামী ইরানের প্রতিষ্ঠাতা হয়রত ইমাম খোমেনী র: মতোই একজন চিন্তাশীল মনীষি। ইসলামী বিপ্লবের বিজয়ের পর তিনি ইমাম খোমেনীকে লেখা চিঠিপত্রের মাধ্যমে বিপ্লবের স্বপেক্ষে তার মতামত ব্যক্ত করেছেন। তার লেখা কালজয়ী বহু গ্রন্থের মধ্যে রয়েছে- ” আমাদের অর্থনীতি, আমাদের দর্শন, সামাজিক সমস্যা ও সমকালীন মানুষ, নবীদের শাহাদাত এবং মানুষের খেলাফাত অন্যতম।

১২৯৮ বছর আগে আবুল আব্বাস আবদুল্লাহ বিন মোহাম্মাদ যিনি সাফহ নামে বিশেষভাবে পরিচিত তিনি আব্বাসীয় খলিফাদের মধ্যে প্রথম খেলাফাতের মসনদে বসেন। উল্লেখ্য আব্বাসীয়রা আবু মোসলেম খোরাসানি এবং তার সেনাবাহিনীর সহযোগীতায় সর্বশেষ উমাইয়া শাসক দ্বিতীয় মারোয়ানকে হত্যা করে উমাইয়া শাসন প্রতিষ্ঠা করে। তবে বনি আব্বাসীয়রাও উমাইয়াদের মতো বছরের পর বছর ধরে সেখানকার জনগণের উপর জানমালের উপর অত্যাতার চালায় এবং ৬৫৬ হিজরী পর্যন্ত তারা শাসন ক্ষমতায় ছিলেন।
১৭৫৭ খৃষ্টাব্দের এ দিনে বাংলার নবাব আলীবর্দী খাঁ মারা যান।

১৯ ৫৯ সালের এ দিনে পৃথিবী থেকে পাঠানো রাডার সিগনাল সূর্যের সাথে ধাক্কা খেয়ে ফিরে আসে।
১৯৭১ সালের এ দিনে বাংলাদেশের রাঙ্গামাটিতে ল্যান্সনায়েক মুন্সী আবদুর রউফ বীর শ্রেষ্ঠ নিহত হন।
১৯৭২ সালের ইতিহাসের এ দিনে বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রথম স্থল, নৌ ও বিমান বাহিনী গঠন করা হয়।

মহান দিগি¦জয়ী সুলতান মাহমুদ গজনবীর ইন্তেকাল (১০৩০)
জুয়ান দ্য লেওনের ফ্লোরিডা আবিষ্কার (১৫১৩)
বৃটিশ বাহিনীর ভারতের মাদ্রাজ দখল (১৭৫৯)
চীনে প্রথম পার্লামেন্ট চালু (১৯১৩)
বাংলাদেশ সরকার কর্তৃক প্রথম স্থল, নৌ ও বিমান বাহিনী গঠন (১৯৭২)
স্পেনিশ চিত্রশিল্পী পাবলো পিকাসোর মৃত্যু (১৯৭৩)
পাকিস্তানের অস্ত্রগুদামে বিস্ফোরণ, শতাধিক নিহত । আহত ৫ শতাধিক (১৯৮৮)
অর্থ কেলেংকারির অভিযোগে জাপানের প্রধানমন্ত্রী হোসেকাওয়ার পদত্যাগ (১৯৯৪)
১৯৭২র পর পুনরায় ঢাকায় বাংলাদেশ-ভারত বাণিজ্য বৈঠক অনুষ্ঠিত (২০০২)

আপনার মতামত লিখুনঃ