আরও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল

আরও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল আরও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল আরও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল
আরও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল

ক্রমশ আরও ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে অস্ট্রেলিয়ার দাবানল। সেই সঙ্গে দেশটি জ্বলছে সর্বাধিক তাপমাত্রায়। দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলে প্রবল ঝড়ো বাতাসের কারণে দমকল বাহিনীর কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

দাবানল সঙ্কট সঠিকভাবে মোকাবিলা করতে ব্যর্থ হওয়ায় সমালোচিত হচ্ছেন অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন। ৫ জানুয়ারি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম এ তথ্য জানায়। খবরে বলা হয়, অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস রাজ্যে ঘণ্টা প্রতি ৮০ মাইল বেগে বইছে ঝড়ো হাওয়া।

এতে দাবানল আরও বিশাল এলাকাজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। এ রাজ্যের বেইটম্যান্স বে ও মরুয়া অঞ্চলে হাজারও মানুষ বিদ্যুৎবিচ্ছিন্ন রয়েছে। দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় অস্ট্রেলিয়ায় প্রবল ঝড়ো হাওয়ায় আগুন আরও ছড়িয়ে পড়ছে, ধোঁয়ায় অন্ধকার হয়ে গেছে চারদিক, আকাশ লাল রঙ ধারণ করেছে।

বেশিরভাগ স্থানে তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াসের ওপরে। পশ্চিম সিডনির পেনরিথে তাপমাত্রা পৌঁছেছিল ৪৮ দশমিক ৯ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। ওই মুহূর্তে বিশ্বের সর্বাধিক তাপমাত্রা বিশিষ্ট অঞ্চল ছিল সেটি। রোববার নিউ সাউথ ওয়েলস ফায়ার কমিশনার শেন ফিটসিমন্স বলেন, আশঙ্কা করা হচ্ছে, গত শনিবারের আগুনে পুড়ে গেছে কয়েকশ’ বসতবাড়ি।

এদিন উদ্ধারকাজ করতে গিয়ে আহত হয়েছেন চার জন দমকলকর্মী। তাদের মধ্যে তিন জন তাপদাহ ও গরমে অসুস্থ হয়ে গেছেন এবং এক জন আগুন নেভাতে গিয়ে হাত পুড়িয়ে ফেলেছেন। এ রাজ্যের পরিবহনমন্ত্রী অ্যান্ড্রু কন্সট্যান্স এ দাবানলকে ‘পারমাণবিক বোমার’ সঙ্গে তুলনা করে বলেন, যে বিপর্যয় ঘটেছে তা অবর্ণনীয়।

শনিবার এক সংবাদ সম্মেলনে অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন আগুন নিয়ন্ত্রণে তিন হাজার সেনা মোতায়েন করার ঘোষণা দেন। এদিন দাবানল সঙ্কট মোকাবিলায় সরকার কী কী কাজ করছে, সেসব নিয়ে টুইটারে একটি ভিডিও প্রকাশ করেন তিনি।

সেই ভিডিওর ব্যাকগ্রাউন্ডে ‘আপবিট সুর’ ব্যবহার করায় তীব্র সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি। নিউ সাউথ ওয়েলস প্রিমিয়ার গ্ল্যাডিস বেরেজিকলিয়ান বলেন, পরিস্থিতি খুবই ভয়াবহ এবং অবস্থা আরও খারাপ হতে যাচ্ছে।

অসংখ্য স্থানে জ্বলছে আগুন, গুরুতর ঝুঁকিতে রয়েছে সবাই। তাই যে যেখানে রয়েছে, সেখান থেকে অন্য স্থানে যেতে নিরুৎসাহিত করছি আমরা। গুরুতর পরিস্থিতির কারণে ভিক্টোরিয়ার ‘স্নোয়ি মাউনটেন্স’ থেকে সরিয়ে নেওয়া হয়েছে কয়েকজন দমকলকর্মীকে।

এ রাজ্যে দাবানল আক্রান্ত এলাকায় আটকে পড়া মানুষদের উদ্ধার করার জন্য কাজ করছে সেনাবাহিনীর হেলিকপ্টার।

ভিক্টোরিয়ার ম্যালকুটার সমুদ্র সৈকত থেকে কয়েকশ’ মানুষকে উদ্ধার করেছে নৌবাহিনীর দু’টি জাহাজ। বন্দর থেকে বাসে করে নিরাপদ আশ্রয়কেন্দ্রে নেওয়া হয়েছে তাদের। এ রাজ্যে রাতারাতি তিন স্থানে আগুন লেগে গেছে, যা ছয় হাজার হেক্টর এলাকাজুড়ে জ্বলছে।

বেশকিছু অঞ্চলে বসবাসরত এক লাখ মানুষকে দাবানল এলাকা ছেড়ে নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিতে বলা হয়েছে; জারি রয়েছে জরুরি অবস্থা।

২১ ব্যক্তি নিখোঁজ রয়েছে এ রাজ্যে। সাউথ অস্ট্রেলিয়া রাজ্যের ক্যাঙ্গারু আইল্যান্ডে মারা গেছেন দু’জন। দাবানলে পুড়ে গেছে এ দ্বীপের অনেকাংশ। সেপ্টেম্বর থেকে দাবানলে এ পর্যন্ত অন্তত ২৩ জনের প্রাণহানি হয়েছে। নিখোঁজ রয়েছেন কয়েক ডজন মানুষ। এছাড়া, পুড়ে গেছে ১৫শ’ বসতবাড়ি ও কয়েক লাখ একর জমি।