আগামীকাল জন্ম নেবে ৮ হাজারের বেশি শিশু

আগামীকাল জন্ম নেবে ৮ হাজারের বেশি শিশু

ডেস্ক রিপোর্টঃ আগামীকাল নতুন বছরের প্রথম দিন। এ দিন বাংলাদেশে ৮ হাজার ৯৩ শিশু জন্মগ্রহণ করতে পারে।

মঙ্গলবার এই তথ্য প্রকাশ করেছে জাতিসংঘ শিশু তহবিল (ইউনিসেফ)।

সংস্থাটি জানিয়েছে, আগামীকাল বিশ্বজুড়ে জন্মগ্রহণ করতে পারে ৩ লাখ ৯২ হাজার ৭৮ শিশু। বুধবার বিশ্বের মোট জন্ম নেয়া শিশুর ২ দশমিক শূন্য ৬ শতাংশ জন্ম হবে বাংলাদেশে।

ইউনিসেফের নির্বাহী পরিচালক হেনরিয়েটা ফোর জানান, প্রশান্ত মহাসাগরীয় অঞ্চলের দেশ ফিজিতে খুব সম্ভবত ২০২০ সালের প্রথম শিশুর জন্ম হবে। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হবে শেষ শিশুর জন্ম।’

বিশ্বব্যাপী জন্মগ্রহণ করা শিশুদের মধ্যে অর্ধেকেরও বেশি শিশুর জন্ম হবে আটটি দেশে।

ভারতে ৬৭ হাজার ৩৮৫, চীনে ৪৬ হাজার ২৯৯, নাইজেরিয়ায় ২৬ হাজার ৩৯, পাকিস্তানে ১৬ হাজার ৭৮৭, ইন্দোনেশিয়ায় ১৩ হাজার ২০, যুক্তরাষ্ট্রে ১০ হাজার ৪৫২, গণতান্ত্রিক প্রজাতন্ত্র কঙ্গোতে ১০ হাজার ২৪৭ এবং ইথিওপিয়ায় জন্ম নেবে ৮ হাজার ৪৯৩ শিশু।

প্রসঙ্গত, প্রতি জানুয়ারিতে নববর্ষের দিনটি বিশ্বজুড়ে শিশু জন্মগ্রহণের জন্য একটি শুভ দিন, যে দিনে ইউনিসেফ শিশুদের জন্ম উদযাপন করে।

তবে বিশ্বজুড়ে লাখ লাখ নবজাতকের জন্য তাদের জন্মের এই দিনটি খুব একটা শুভ হয়ে দেখা দেয় না। ২০১৮ সালে ২৫ লাখ নবজাতক তাদের জীবনের প্রথম মাসেই মৃত্যুবরণ করে।

এদের প্রায় এক তৃতীয়াংশ তাদের জীবনের প্রথম দিনেই মারা যায়।

ইউনিসেফের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, গত তিন দশকে বিশ্বজুড়ে শিশুদের বেঁচে থাকার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য অগ্রগতি লক্ষ্য করা গেছে এবং বিশ্বজুড়ে পঞ্চম জন্মদিনের আগেই মৃত্যুবরণ করা শিশুদের সংখ্যা অর্ধেকেরও বেশি কমেছে। তবে নবজাতকদের ক্ষেত্রে অগ্রগতির মাত্রা বেশ ধীর।

২০১৮ সালে পাঁচ বছরের কম বয়সি যত শিশুর মৃত্যু হয়েছে তাদের ৪৭ শতাংশই মারা গেছে তাদের জন্মের প্রথম মাসে, ১৯৯০ সালের তুলনায় ৪০ শতাংশ বেশি।

আরও পড়ুনঃ